ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

নূপুর শর্মাকে বাঁচাতেই সাংবাদিক গ্রেপ্তার?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৬ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০২২
নূপুর শর্মাকে বাঁচাতেই সাংবাদিক গ্রেপ্তার?

চার বছর আগে মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে একটি পোস্ট করেছিলেন ভারতীয় সাংবাদিক মোহাম্মদ যুবায়ের। সম্প্রতি সেই পোস্টের বিরুদ্ধে ধর্মীয় দেবতাদের অপমান করার অভিযোগ আসায় তাকে গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশ।

ধারণা করা হচ্ছে, মহানবী হজরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে বিজেপির সাবেক কর্মকর্তা নূপুর শর্মার বক্তব্য ঘিরে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা চাপা দিতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

যুবায়ের ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইট অল্ট নিউজের সাংবাদিক। মঙ্গলবার (২৮ জুন) তাকে ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে। এর আগে সোমবার রাতে তাকে গ্রেপ্তারের কথা জানায় স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

জানা গেছে, ২০১৮ সালের মার্চে যুবায়ের একটি টুইট করেন। সেই টুইট নিয়ে এ মাসে দিল্লি পুলিশের কাছে একটি অভিযোগ জমা পড়ে। অভিযোগে বলা হয়- ২০১৮ সালের মার্চে যুবায়ের একটি ধর্মের দেবতাদের ইচ্ছাকৃতভাবে অপমান করার জন্য বিতর্কিত ছবি পোস্ট করেন।

অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতা প্রতীক সিনহা বলেন, যুবায়েরকে পুলিশ ২০২০ সালের একটি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ডেকেছিল। ওই মামলায় যুবায়েরকে গ্রেপ্তার না করার বিষয়ে আদালতের নির্দেশ আছে। আর নতুন অভিযোগের ক্ষেত্রে নোটিশ দেওয়া বাধ্যতামূলক। কিন্তু কোনো নোটিশ দেওয়া হয়নি। এফআইআরের কপিও বারবার চেয়ে পাওয়া যায়নি। যুবায়েরকে অন্য একটি মামলায় ধর্মীয় ভাবনায় আঘাত করা এবং সমাজে শত্রুতা তৈরির অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এনডিটিভি জানাচ্ছে, পুলিশ স্বীকার করেছে, তারা যুবায়েরকে অন্য মামলায় প্রশ্ন করার জন্য ডেকেছিল। কিন্তু নতুন মামলায় যথেষ্ট তথ্য পাওয়া গেছে। পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

পুলিশ বলছে, যুবায়ের ২০১৮ সালে যে টুইটটি করেছিলেন, তা চরম উসকানিমূলক। ওই টুইটে যুবায়ের লিখেছিলেন- ‘২০১৪’র আগে হানিমুন হোটেল, ২০১৪’র পর হনুমান হোটেল। ’ এই টুইটের সঙ্গে বাঙালি পরিচালক হৃষিকেশ মুখোপাধ্যায়ের ‘কিসিসে না কেহনা’র একটি ফ্রেম শেয়ার করেছিলেন তিনি।

যুবায়েরকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ করে টুইট করেছেন রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন, একটি সত্যের গলা রুদ্ধ করে দেওয়ার পর এরকম হাজারো সত্যের গলা সোচ্চার হবে।

শশী থারুর বলেছেন, বর্তমানে ইচ্ছাকৃত ভুল খবর প্রচারের যুগে অল্টনিউজের মতো ফ্যাক্ট চেকিং প্ল্যাটফর্ম খুবই জরুরি কাজ করছে। তারা মিথ্যাকে ধরছে। যুবায়েরকে গ্রেপ্তার করাটা সত্যের ওপর আঘাত। তাকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।

যদিও একপক্ষের অভিযোগ, মহানবী হজরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে বিজেপির সাবেক দুই কর্মকর্তার (নূপুর শর্মা ও নাভিন কুমার জিন্দাল) বিতর্কিত বক্তব্য এবং এ নিয়ে হওয়া ক্রমবর্ধমান  প্রতিবাদ-আন্দোলন ধামাচাপা দিতেই ভারত সরকার সাংবাদিক যুবায়েরকে গ্রেপ্তার করেছে। তিনিই প্রথম সাংবাদিক যিনি টিভিতে নূপুর শর্মার দেওয়া বক্তব্য সবার সামনে তুলে আনেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৬ ঘণ্টা, ২৮ জুন, ২০২২
এনএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa