ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

তিয়ানগংয়ে আরও তিন নভোচারী পাঠাল চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২২
তিয়ানগংয়ে আরও তিন নভোচারী পাঠাল চীন তিন মহাকাশচারী ছয় মাস মহাকাশ স্টেশনে থাকবেন

মহাকাশ স্টেশন তিয়ানগংয়ে নতুন তিন নভোচারী পাঠিয়েছে চীন। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) শেনঝো-১৫ নভোযানে করে তারা মহাকাশের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

নতুন নভোচারীরা মহাকাশ স্টেশনটিতে ছয় মাস অবস্থান করবেন।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার বরাত দিয়ে আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

তিয়ানগং চীনের নিজস্ব মহাকাশ স্টেশন। ২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার মহাকাশ কার্যক্রম থেকে বাদ দেওয়া হয় চীনকে। এরপর নিজস্ব স্টেশন তৈরিতে মনোযোগ দেয় দেশটি।

আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মঙ্গলবার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের গোবি মরুভূমির জিউকুয়ান স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে এই নতুন নভোচারীদের নিয়ে যাত্রা শুরু করে শেংঝৌ-১৫ নভোযানটি। মহাকাশ স্টেশন তৈরি প্রক্রিয়ার সর্বশেষ অংশ ছিল এটি। তিয়ানগং স্টেশনটি প্রায় এক দশক মহাকাশে থাকবে।

চীনের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান চায়না ম্যানড স্পেস স্টেশন (সিএমএসএ) জানিয়েছে, নতুন নভোচারীরা মহাকাশ স্টেশনটিতে যন্ত্রাংশ প্রতিস্থাপন করবেন। ধারণা করা হচ্ছে আগামী বছরের মধ্যে স্টেশন তৈরির কাজ পুরোপুরি শেষ হবে।

এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটি জানিয়েছে, ছয় মাসের মিশনের জন্য দলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন অভিজ্ঞ ফেই জুনলং, দেং কিংমিং ও ঝাং লু। এদের মধ্যে দেং কিংমিং ও ঝাং লু নতুন নভোচারী।

৫৭ বছর বয়সী ফেই ১৭ বছর পর মহাকাশে ফিরছেন। ২০০৫ সালে শেনঝো-৬ মিশনে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তার দল তিয়ানগং মহাকাশ স্টেশনে আরও তিন মহাকাশচারীর সঙ্গে যোগ দেবেন, যারা জুনের শুরুতে থেকে ছিলেন।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় মহাকাশ একাডেমির পরিচালক অনু ওঝা আল জাজিরাকে জানিয়েছেন, ক্রুরা বর্তমানে তিয়ানগং মহাকাশ স্টেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। চীনের জন্য এটি একটি মাইলফলক।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৬, নভেম্বর ৩০, ২০২২
এমএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa