ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সাক্ষাৎকার

ঈশ্বরদীকে নতুন করে গড়বেন মিন্টু

সেলিম সরদার, উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০১৬
ঈশ্বরদীকে নতুন করে গড়বেন মিন্টু আবুল কালাম আজাদ মিন্টু

ঈশ্বরদী(পাবনা): ঈশ্বরদী পৌরসভাকে নতুন করে গড়তে আমি কোনো অশুভ বাধা মানবো না। পৌরবাসীকে সঙ্গে নিয়ে এই ভাঙাচোরা ঈশ্বরদীকে সুন্দর শহরে রুপান্তরিত করবো।



নির্বাচিত হওয়ার পর ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু বাংলানিউজের কাছে এ আশা ব্যক্ত করেছেন।

তিনি বলেন, ঈশ্বরদী অনেক বড় হবে, প্রিয় এই শহরকে আমি সুন্দর করে সাজাতে চাই, প্রথম শ্রেণির পৌরশহরকে সবার বাসযোগ্য করে গড়ে তুলে পৌরবাসীর ভালবাসার প্রতিদান দিতে চাই।

নির্বাচনের আগে প্রতিটি পাড়ায় পাড়ায়, মহল্লায় মহল্লায় পৌরবাসীর দোরগোড়ায় গিয়ে আমি নিবিষ্টমনে মানুষের কাছ থেকে যে আকুতি শুনেছি আজ তা বাস্তবায়ন করার সুযোগ এসেছে। বললেন মেয়র মিন্টু্।

তিনি বলেন, ঈশ্বরদীকে সুন্দর ঈশ্বরদীতে পরিণত করার জন্য যখন যেখানে যা করা প্রয়োজন তা সময়মতো করা হবে। আর এতে যদি কোনো বাধা আসে তা শক্ত হাতে প্রতিহত করে আমাদের লক্ষে পৌঁছাতে হবে। পৌরবাসী আমার কাঁধে যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছেন এই দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করবো।

দায়িত্ব গ্রহণের পর আপনি কোন কাজটি প্রথমে করবেন? বাংলানিউজের এ প্রশ্নের উত্তরে মেয়র বলেন, বর্তমানে ঈশ্বরদী শহরকে দেখে মনেই হয় না যে, এটি একটি প্রথম শ্রেণির পৌর শহর, তাই দায়িত্ব গ্রহণের পর আমি এই শহরের ভাঙাচোরা রাস্তা-ঘাটগুলি আগে সংস্কারের কাজে হাত দেবো। তারপর পর্যায়ক্রমে শহরের শ্রীবৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করবো।

মেয়র মিন্টু বাংলানিউজকে বলেন, পাবলিক লাইব্রেরির জন্য ঈশ্বরদীর মানুষ যেভাবে ভাবেন, আমিও তাদের মতো সবসময় ভাবি। ঈশ্বরদীকে বড় করে তুলতে হলে এখানে একটি পাবলিক লাইব্রেরি স্থাপন করা খুবই জরুরি। খুব কম সময়ের মধ্যেই আমি পাবলিক লাইব্রেরিসহ সুস্থ সামাজিক সাংস্কৃতিক চর্চার জন্য একটি সুশৃঙ্খল পরিমণ্ডল গড়ে তুলতে বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করবো।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিগত সময়ে কিছু অসাধু রাজনৈতিক কর্মী ও খারাপ মানুষের কারণে ঈশ্বরদী অনেক কলঙ্কিত হয়েছে, এতদিন আমার হাতে এসব নিয়ন্ত্রণের কোনো ক্ষমতা ছিল না, এখন পৌরবাসী আমাকে যে সম্মান দিয়েছেন সে সম্মান সর্বশক্তি দিয়ে রক্ষা করবো। মাদকমুক্ত করবো এ পৌরসভাকে।

তিনি বলেন, আমার নিজ রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মী পরিচয় দিয়েও যদি কেউ মাদক ব্যবসা করে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০১৬
পিসি

** পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পৌরসভা গড়তে চান নন্দীগ্রামের জুয়েল

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa