ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩১ মে ২০২৪, ২২ জিলকদ ১৪৪৫

ইসলাম

বসুন্ধরা গ্রুপের আয়োজনে হাজারো মানুষের ইফতার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ৮, ২০২৪
বসুন্ধরা গ্রুপের আয়োজনে হাজারো মানুষের ইফতার

ঢাকা: জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে একসঙ্গে বসে ইফতার করেন সমাজের সব স্তরের মানুষ। পবিত্র রমজান এলেই এ মসজিদে অন্য রকম এক আবহ দেখা যায়।

নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত আর জিকির-আজকারে সারা দিনই মুখর থাকে মসজিদ অঙ্গন। সন্ধ্যায় দেখা যায়, হাজারো রোজাদার মুসল্লি কাতারবদ্ধ হয়ে ইফতার করছেন।

সোমবারও (৮ এপ্রিল) চিরপরিচিত এ দৃশ্যের দেখা মিলল। আসরের পরপর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে গিয়ে দেখা যায়, নামাজ আদায় করেই মসজিদের পূর্ব চত্বরে মুসল্লিরা সারিবদ্ধভাবে বসে পড়েছেন। বসে বসে কেউ নিঃশব্দে তসবিহ জপছেন, কেউ বা মৃদুস্বরে করছেন জিকির। পাশেই একদল মানুষ ইফতার বিতরণ করা নিয়ে ব্যস্ত।

কথা বলে জানা গেল, তারা সবাই বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ মুসল্লি কমিটির স্বেচ্ছাসেবক। আসরের নামাজের পরপরই তারা ইফতারি বিতরণে মনোযোগী হন।

রমজানজুড়ে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে প্রতিদিন তিন হাজার রোজাদারের জন্য ইফতারের আয়োজন করেছে দেশের শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। সাধারণ মুসল্লি থেকে শুরু করে ছিন্নমূল মানুষ, সবাই এখানে ইফতার করছেন। প্রায় ২০০ নারীও এখানে ইফতার করছেন প্রতিদিন।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ মুসল্লি কমিটির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মানিক বলেন, ‘দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) প্রেসিডেন্ট ও বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ মুসল্লি কমিটির প্রধান উপদেষ্টা সায়েম সোবহান আনভীরের উদ্যোগে এবার তৃতীয়বারের মতো আয়োজন চলছে। গত বছর আমাদের এখানে ৮০ হাজার মানুষের জন্য ইফতারির আয়োজন করা হয়েছে। এ বছর এক লাখ লোকের ইফতারির আয়োজন করা হয়েছে। ’

মিজানুর রহমান আরও বলেন, ‘স্থানীয় লোকজন ছাড়াও দেশের দূরদূরান্ত থেকে আসা বহু মানুষ বায়তুল মোকাররমে নামাজ আদায় করেন। রমজানের সময় অনেকে বুঝতে পারেন না কোথায় ইফতার করবেন। বহু মানুষ আছেন সামর্থ্যহীন। তাদের সবার জন্যই এ ব্যবস্থা। ’

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৮, ২০২৪
এইচএমএস/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।