ঢাকা, রবিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

চাঁদপুরে রাজমিস্ত্রি হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় ১০ আসামি কারাগারে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
চাঁদপুরে রাজমিস্ত্রি হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় ১০ আসামি কারাগারে

চাঁদপুর: চাঁদপুর শহরের জিটি রোড উত্তর বিষ্ণুদী এলাকায় রাজমিস্ত্রি হাসান ছৈয়ালকে মোবাইল ফোন চুরির অপবাদ, মারধর ও  আত্মহননের প্ররোচনায় দায়ের করা মামলায় ১০ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আসামিরা স্বেচ্ছায় জামিনের জন্য চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ সামছুল আলমের আদালাতে হাজির হন।

বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আসামিরা হলেন- শহরের বিষ্ণুদী এলাকার সেলিম খান (৪২), মো. জাহাঙ্গীর গাজী (৪৩), আনোয়ার গাজী (৩২), মোক্তার বেপারী (২৮), হাসান পাটওয়ারী (২৬), মো. সবুজ আখন (২৮), এলেমান বেপারী, (৪৫) সিরাজ গাজী (৫৫), কামাল হোসেন (৩৫) ও মো. মহসীন (৪০)।

বাদী পক্ষের আইনজীবী মজিবুর রহমান ভুঁইয়া বিকেলে এসব তথ্য বাংলনিউজকে নিশ্চিত করেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, ২০২২ সালের ২৩ আগস্ট ভোর ৬টার দিকে হাসান ছৈয়ালের ঘরের সামনে এসে মোবাইল ফোন চুরি করেছে অপবাদ দিয়ে আসামীরা সংঘবদ্ধ হয়ে গালমন্দ করে। এক পর্যায়ে তাকে মোবাইল চুরি করেছে অভিযুক্ত করে ঘরে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখে তারা। এবং হাত-পা কেটে ফেলবে হুমকি-ধামকি দিতে থাকে। ওইদিন দুপুরে আসামিরা হাসানকে ঘরে আটকে রেখে চলে যায়। হাসান ভয়ে ঘরে থাকা সিলিংফ্যানে গামছা ও বেল্ট দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। সংবাদ পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানা ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

এই ঘটনায় হাসান ছৈয়ালের পিতা মো. শরীফ ছৈয়াল ওইদিনই চাঁদপুর মডেল থানায় ৮ জনের নামসহ অজ্ঞাতনামা আসামি করে ৩০৬/৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চাঁদপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শাহজাহান তদন্ত শেষে গত ২০২২ সালের ৩০ অক্টোবর ১৪ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন।

মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন জসিম উদ্দিন পাটওয়ারী।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।