ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

টাম্পাকো মালিককে এক সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৬
টাম্পাকো মালিককে এক সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

টঙ্গীর টাম্পাকো ফয়েলস কারখানার দুর্ঘটনায় করা হত্যা মামলায় কারখানার চেয়ারম্যান সৈয়দ মকবুল হোসেনসহ ছয় কর্মকর্তাকে এক সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসর্মপণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ঢাকা: টঙ্গীর টাম্পাকো ফয়েলস কারখানার দুর্ঘটনায় করা হত্যা মামলায় কারখানার চেয়ারম্যান সৈয়দ মকবুল হোসেনসহ ছয় কর্মকর্তাকে এক সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসর্মপণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সৈয়দ মকবুল হোসেন ও তার পরিবারের সদস্যসহ আট কর্মকর্তার জামিনের আবেদনের শুনানি শেষে বুধবার (২৩ নভেম্বর) এ আদেশ দেন বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জাফর আহমদের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদালতে জামিনের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এম আতাউল গণি। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

গত ১০ সেপ্টেম্বর গাজীপুরের টঙ্গীর বিসিক শিল্পনগরী এলাকার টাম্পাকো ফয়েলস কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অনেক হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর টঙ্গী থানায় হত্যা ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে দু’টি মামলা দায়ের করা হয়।

এ দুই মামলায় মকবুল ছাড়া তার স্ত্রী সাজেদা পারভীন হোসেন, ছেলে টাম্পাকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ তানভীর আহমেদ, কারখানার মহাব্যবস্থাপক শফিকুর রহমান, ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মনির হোসেন, ডিএমডি সাফি-উস-সামি আলমগীর ও ব্যবস্থাপক (প্রশাসন ও আইন) আবু হানিফকে আসামি করা হয়।

তবে এর মধ্যে শুধু এক মামলায় আসামি করা হয়েছে মেয়ে আবিদা হোসেনকে।

এ দু’টি মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের সদস্যসহ ৮ জন গত সোমবার (২১ নভেম্বর) হাইকোর্টে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। তিনদিনের শুনানি শেষে বুধবার হাইকোর্ট মকবুলের স্ত্রী ও মেয়েকে আট সপ্তাহের জামিন দেন। আর বাকিদের এক সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের আদেশ দেন।

পরে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও আইনজীবী আতাউল গণি সাংবাদিকদের আদালতের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৬
ইএস/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।