ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

কেরানীগঞ্জের জুলেখা হত্যা মামলার রায় ২৯ নভেম্বর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৬
কেরানীগঞ্জের জুলেখা হত্যা মামলার রায় ২৯ নভেম্বর

রাজধানীর কেরানীগঞ্জের বলসতা গ্রামে নিজ বাড়িতে খুন হওয়া জুলেখা হত্যা মামলার রায় ঘোষণার জন্য আগামী ২৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ঢাকা: রাজধানীর কেরানীগঞ্জের বলসতা গ্রামে নিজ বাড়িতে খুন হওয়া জুলেখা হত্যা মামলার রায় ঘোষণার জন্য আগামী ২৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার (২৭ নভেম্বর) মামলাটির রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য ছিল।

কারাগারে থাকা দুই আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। কিন্তু বিকেল ৪টায় বিচারকের বরাত দিয়ে আদালতের পেশকার জানিয়ে দেন, ‘রোববার রায় ঘোষণা হবে না। বিচারক ২৯ নভেম্বর রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য করেছেন। ’

মামলাটি ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এসএম সাইফুল ইসলামের আদালতে বিচারাধীন আছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, নিহত জুলেখার বড় মেয়ে মাফিয়া তার ছেলে আসামি চঞ্চলকে নিয়ে মায়ের বাসায় থাকতেন। চঞ্চলের স্বভাব চরিত্র ভালো ছিল না। সে নেশা করতো এবং তার নানিকে গালিগালাজ করতো।
২০১১ সালের ১০ মে রাত পৌনে ৯টার দিকে মাফিয়া বাসায় ফিরে দেখে তার মা জুলেখা বেগম নেই। তাকে ডাকাডাকি করেও পাওয়া যাচ্ছে না। তার ভাই মামলার বাদী আব্দুল জাব্বারকে খবর দিলে সে এসে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে দেখে তার মা রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরের মেঝে পড়ে আছে।

বাদী তার ভাই সেন্টুকে খবর দিলে সেন্টু লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে আসার পথে আসামি চঞ্চল ও তার বন্ধু চাঁন মিয়া ওরফে চান্দুকে দেখে ঘটনার কথা জিজ্ঞেস করলে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। তারা ওই দু’জনকে আটক করে থানায় হস্তান্তর করে।

এ ঘটনায় চঞ্চল ও চান্দুকে আসামি করে নিহতের ছেলে আব্দুল জাব্বার ঢাকার কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ঘটনাটি তদন্ত করে কেরানীগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল আলম ওই বছরের ৭ জুলাই আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৬
এমআই/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।