ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

খান জাহান আলী দিঘির আকৃতি পরিবর্তনে নিষেধাজ্ঞা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৭
খান জাহান আলী দিঘির আকৃতি পরিবর্তনে নিষেধাজ্ঞা খান জাহান আলী দিঘি। ফাইল ফটো

ঢাকা: খুলনা সিটি করপোরেশনের আওতাধীন ‘খান জাহান আলী’ দিঘির আকার ও আকৃতি পরিবর্তনের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) রুলসহ অন্তবর্তীকালীন এই আদেশ দেন।

আদেশে ওই দিঘি ভরাটের ক্ষেত্রে মো. জাকির হোসেন মৃধা,  শেখ মারুফ হোসেন ও কাজী মাহবুবুর রহমান মৃধার কার্যক্রমের উপর ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।



এছাড়া ভরাটকারীদের কার্যক্রম কঠোরভাবে তদারকিপূর্বক দিঘিটির বর্তমান অবস্থা ও অবস্থান সম্পর্কিত তথ্য প্রতিবেদন আকারে আদালতে দাখিল করতে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহা-পরিচালকসহ বিবাদীদেরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনটি দায়ের করে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা) ।

আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মিনহাজুল হক চৌধুরী ও সাঈদ আহমেদ কবীর।

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ৯ নং ওয়ার্ডে মুজগুন্নী-খালিশপুর এলাকায় মুজগুন্নী মৌজায় ঐতিহ্যবাহী খানজাহান আলী দিঘিটি অবস্থিত। এলাকার পানি নিষ্কাশনের অন্যতম আধার হিসেবে এই দিঘিটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া সুপেয় পানির সংকট থাকায় এলাকার নিম্নবিত্ত পরিবার দৈনন্দিন গৃহস্থালি কাজে এই দিঘির পানি ব্যবহার করে থাকে। বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ এবং জলাবদ্ধতা নিরসনে দীঘিটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

২০১৫ সাল থেকে কতিপয় স্বার্থান্বেষী ব্যক্তি এই দিঘিটি ভরাট করার একটি অপপ্রয়াস শুরু করে।

বাংলাদেশ সময়: ০২৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৭
ইএস/জেডএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।