ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আইন ও আদালত

লক্ষ্মীপুরে হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
লক্ষ্মীপুরে হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন 

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে প্রাইভেটকার চালক নাজমুল আহসান হত্যা মামলায় চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ শাহে নূর এ রায় দেন।

দণ্ড প্রাপ্তরা হলেন- লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া গ্রামের জিল্লুর রহিমের ছেলে কামরুল হাসান রাব্বি (২১), শ্রীরামপুর গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে মো. রুবেল (২১), আবদুল ওয়াদুদের ছেলে মো. মানিক (২৩) এবং বড়ালিয়া গ্রামের আবদুল হাই এর ছেলে মো. রিয়াজ (২৫)।

রায়ের সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১২ জুন ঢাকার উত্তরা থেকে ভুয়া পরিচয় দিয়ে একটি রেন্ট-এ কারের প্রাইভেটকার ভাড়া নেয় আসামিরা। ওইদিন রাতে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের তোতারখিল এলাকায় আসার পর ওই গাড়ির চালক নাজমুল আহসানকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে তারা গাড়িটি নিয়ে পালিয়ে যান। নাজমুল চাপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার হুজাপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেন মালুর ছেলে।  

এ ঘটনায় ২০১৩ সালের ২২ জুন গাড়ির মালিক শাহীন তারেক বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। শাহীন ঢাকা দক্ষিণখান এলাকার সিরাজ উদ্দিন আহমেদের ছেলে।  

পরে চাঁদপুর থেকে ওই গাড়িটি উদ্ধার করে পুলিশ। এর সূত্র ধরে কামরুল ও রুবেলকে গ্রেফতারের পর তারা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। পরবর্তীতে তারা জামিনে বের হন।

২০১৪ সালের ২০ অক্টোবর চার জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। পরে ১০ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামিদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দেন আদালত।  

লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, চালক নাজমুল হত্যা মামলায় চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।  

এছাড়া ৪২০ ধারায় আসামিদের আরও ৫ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আসামিরা সবাই পলাতক রয়েছে বলেও জানান পিপি জসিম উদ্দিন 

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
এসআর/আরআইএস/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa