ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ মাঘ ১৪২৮, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

সলঙ্গায় শিশু হত্যা

৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কমে যাবজ্জীবন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০২১
৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কমে যাবজ্জীবন

ঢাকা: ২০০৬ সালে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা উপজেলায় ৯ বছরের শিশু আশিকুর রহমান নিলয় হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত চার আসামির সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

আসামিদের আপিল খারিজ করে বুধবার (৮ ডিসেম্বর) রায় দেন আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ।

আসামি এরশাদ আলী ওরফে এরশাদ, আবুল কালাম ওরফে কালাম ও আশরাফুল ইসলাম ওরফে কানা রিন্টু ওরফে মিন্টুর পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী সারোয়ার আহমেদ।

নুর মোহাম্মদ ওরফে কালা চোর ওরফে কালা ডাকাতের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খবির উদ্দিন ভূইয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

আইনজীবীরা জানান, ২০০৬ সালের ১২ জানুয়ারি সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় থানার ভরমোহনী গ্রামের আব্দুল হালিমের ৯ বছর বয়সী শিশুপুত্র আশিকুর রহমান নিলয়কে অপহরন করা হয়।

অপহরণকারীরা ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে ৭০ হাজার টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে ফেরত দেওয়ার কথা ঠিক হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শিশুটিকে ফেরত দেওয়া হয়নি। ছেলেকে ফেরত না পেয়ে একই বছরের ১৩ জানুয়ারি আব্দুল হালিম থানায় এজাহার দায়ের করে। এরপর পুলিশ ৪ জন আসামিকে গ্রেফতার করে। আসামিদের দেওয়া তথ্যমতে ১৪ জানুয়ারি আব্দুল খালেকের বাড়ি সংলগ্ন সেফটি ট্যাঙ্কের ভেতর থেকে শিশু নিলয়ের বস্তাবন্দী মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিচার শেষে ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর ৪ জন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। পরে নিয়ম অনুসারে ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে। পাশাপাশি চার আসামি এরশাদ, আশরাফুল, আবুল কালাম এবং নুর মোহাম্মদ আপিল করে।

শুনানি শেষে হাইকোর্ট ২০১২ সালের ২০ নভেম্বর মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রাখেন।

এর বিরুদ্ধে আসামিরা আপিল বিভাগে আবেদন করেন। ওই আপিলের শুনানি শেষে বুধবার আসামিদের আপিল খারিজ করে রায় দেন। রায়ে আসামিদের দণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন  এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০২১
ইএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa