ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০২১
স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় স্ত্রীকে হত্যার মামলায় স্বামী রাহিদুল ইসলামকে (৩৫) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আসামির অনুপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (০৯ ডিসেম্বর) দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় দেন।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত রাহিদুল দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া গ্রামের মণ্ডলপাড়ার ইন্তাজ আলীর ছেলে।  

আদালত সূত্রে জানা যায়, অভাব-অনটনের কারণে পারিবারিক কলহের জেরে ২০১০ সালের ০৬ জুলাই দিনগত রাতে চড়-থাপ্পড়, মারধরের পর বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রী রংগীলা খাতুনকে হত্যা করে স্বামী রাশিদুল ইসলাম। সে সময় বিষয়টি টের পেয়ে দৌলতপুর থানায় জানান প্রতিবেশীরা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধূ রংগীলার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। পরের দিন ০৭ জুলাই নিহতের চাচা দিদার হোসেন বাদী হয়ে দৌলতপুর থানার একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। বিয়ের ৯ বছর পর স্ত্রীকে হত্যা করেন তার স্বামী। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে বলে জানা গেছে।

হত্যা মামলার তদন্ত শেষে ২০১১ সালের ০৩ নভেম্বর আসামির নামে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার এ রায় দেন আদালত।

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রাহিদুল পলাতক রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৯, ২০২১
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa