ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

লাইফস্টাইল

সবারই চাই একটি শাল

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০২২
সবারই চাই একটি শাল

শীতে পরার পোশাকের খোঁজ করছেন অনেকেই। এ সময় সবারই চাই একটি শাল।

কারণ একটি শালে উষ্ণতার সঙ্গে আরও জড়িয়ে থাকে অনেক ভালোবাসা, আদর, সম্মান আর অনেক অনেক অমূল্য স্মৃতি। সেই প্রিয় শালটি যদি হয় কোনো প্রিয় মানুষের উপহারের কাশ্মীরি শাল, তবে তো এক জীবন পার করে পরের প্রজন্মও পরম যত্নে শালটির ভাঁজ ভেঙে দেখে।

সুঁচ-সুতোর মাধ্যমে অপূর্ব নকশাকাটা পশমিনা। শীতের দিনে শুধু উষ্ণতা নয়, পশমিনায় জড়িয়ে থাকে আভিজাত্যের মেজাজ। আসল পশমিনা শাল হয়ে উঠতে পারে আমাদের আভিজাত্যের প্রতীক।  

পোশাক ভাণ্ডারে একটি কাশ্মীরি পণ্য আপনাকে আভিজাত্য দেবেই। তবে গায়ে জড়ালে তার চেয়েও বেশি পাবেন একটি মোলায়েম সুন্দর অনুভূতি।

শীতের পোশাকের আড়ালে সৌন্দর্যকে লুকিয়ে রাখতে নয়, পোশাক সংগ্রহের তালিকায় রাখুন একটি বা দুটি কাশ্মীরি পোশাক। এটি আপনার কাছে শুধু একটি সাধারণ পোশাক হিসেবেই নয়, কাশ্মীরের শিল্পীদের হাতের ছোঁয়ায় তৈরি শিল্পকর্ম হিসেবেও থাকবে।

কী ভাবছেন কোথায় পাবেন এই আসল পশমিনা শাল অনেকেই মনে করেন, আমাদের দেশে হয়তো আসল কাশ্মীরি পোশাকগুলো পাওয়া যায় না। তবে এই ধারণা আসলে পুরোপুরি সঠিক নয়। দেশের নামকরা কিছু পোশাকের দোকান সরাসরি কাশ্মীর থেকে অর্ডারের মাধ্যমে নিয়ে আসে শাল-জ্যাকেটগুলো। রাজধানীর নিউমার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্কের আনেক হাউসেই পেয়ে যাবেন আসল পশমিনা।

কাশ্মীরি শীতের শাল বা জ্যাকেটের দাম দেড় হাজার টাকা থেকে শুরু করে সাড়ে ৪ লাখ পর্যন্ত।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০. ২০২২
এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।