ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

লাইফস্টাইল

রূপচর্চায় কফির ফেসপ্যাক 

লাইফস্টাইল ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪
রূপচর্চায় কফির ফেসপ্যাক  ছবি: সংগৃহীত

কফিতে আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা, ত্বকের জন্য ভীষণই উপকারি। ত্বকের মারা কোষ অপসারণ থেকে জেদি ট্যান তুলতে সাহায্য করে এই কফি।

শুধু তাই-ই নয়, ত্বক এক্সফ্লয়েট করতে ও ব্রণর দাগ মিটিয়ে ত্বকের জেল্লা ফেরাতেও সাহায্য করে কফি। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে কফি দিয়ে ফেসপ্যাক বানিয়ে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন…

এক চামচ কফি পাউডারের সঙ্গে সামান্য পানি, অর্ধেক চামচ ব্রাউন সুগার ও এক চামচ নারিকেল তেল মেশান। মিশ্রণটি ভালৈা করে গুলে নিন। এবার এটি আলতো হাতে মালিশ করুন। ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকের জন্য অলিভ অয়েল ভীষণই উপকারি। এক চামক কফি ও অলিভ অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে ত্বকে লাগান। সপ্তাহে একদিন এটি ব্যবহার করে দেখুন। ফল পাবেন।

অ্যালোভেরা ত্বকের পরম বন্ধু বলা চলে। কফির সঙ্গে মেশানে এক গুণাগুণ আরও দ্বিগুণ হয়ে যায়। এক চামচ কফি ও এক চামচ অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে মাখুন। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

কফি ও মধু একসঙ্গে মিশিয়ে মাখলে, দূর হবে ট্যানের সমস্যা। কিছুই না, এক চামচ কফি ও মধু মিশিয়ে স্ক্রাব করুন। সপ্তাহে দুইবার এটা করলেই দূর হবে ট্যান।

এক চামচ কফির সঙ্গে তিন চামচ দুধ মিশিয়ে নিন। এরপর তা পুরো মুখে লাগিয়ে নিন। উপকার পাবে।

নিয়মিত কফির ফেসপ্যাক ব্যবহারে আপনি আপনার পরিবর্তন লক্ষণ করতে পারবেন তাড়াতাড়ি। ফেসপ্যাক ব্যবহারের পর আপনার ত্বক অবশ্যই ময়েশ্চারাইজ করবেন। ফেসপ্যাক ব্যবহারের পর রোদে যাবেন না। কফি ত্বকের ডেড স্কিন টিস্যু রিমুভ করে ত্বককে করে তুলবে ফ্রেশ, ইয়াং এবং গ্লোয়িং।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad