ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ আগস্ট ২০২২, ১২ মহররম ১৪৪৪

লাইফস্টাইল

চায়ের সঙ্গে ধূমপানে হতে পারে কঠিন রোগ

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৬ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২২
চায়ের সঙ্গে ধূমপানে হতে পারে কঠিন রোগ

সকালে ঘুম থেকে উঠেই অনেকে চা খান। আবার অনেকেই অফিসে কাজের ফাঁকে কিংবা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা সবখানে চা-কফি না থাকলে যেন চলেই না।

অনেকই চায়ের সঙ্গে একটা সিগারেট ধরান। তবে জানেন কি, চা আর সিগারেটের এই যুগলবন্দি আপনার স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে।

গবেষণা বলছে, চা এবং সিগারেট একসঙ্গে খেলে বাড়তে পারে ক্যানসারের ঝুঁকি। ‘অ্যানাল্‌স অফ ইন্টারনাল মেডিসিন’ নামে চিকিৎসা সংক্রান্ত পত্রিকায় এমন কথাই বলা হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে যে ধূমপায়ীরা গরম চা খেলে, খাদ্যনালীর ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায় কয়েক গুণ। যাদের ধূমপান বা মদ্যপানের অভ্যাস থাকে তাদের এমনিতেই খাদ্যনালীতে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা থাকে। আবার এর সঙ্গে গরম চা পান করতে থাকলে সেই ঝুঁকি আরও অনেকটা বেশি বেড়ে যায়।

চিনের ৩০ বছর থেকে ৭৯ বছরের ৪৫৬,১৫৫ জনের ওপরে এই গবেষণা চালানো হয়েছিল।  

গবেষকরা জানিয়েছেন, ফুটন্ত গরম চা খাদ্যনালীর কোষের মারাত্মক ক্ষতি করে। সেইসঙ্গে যদি সেই ব্যক্তির ধূমপান ও মদ্যপানের অভ্যাস থাকে তবে ঝুঁকি বেড়ে যায় আরও।

যাদের ওপর গবেষণা চালানো হয়, প্রথম দিকে তাদের কারোই ক্যান্সার ছিল না। তাদের প্রত্যেকের ওপর টানা ৯ বছর নজর রাখা হয়েছিল। দেখা যায়, গবেষণা চলাকালীনই ১৭৩১ জন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। চীনে যেহেতু চা খাওয়ার প্রবণতা বেশি, তাই এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যাও বেশি।

চীনের অনেক বাসিন্দাই অফিসে বা কর্মক্ষেত্রে ফ্লাস্কে করে চা নিয়ে যান। তাদের অভ্যাস হলো ঘন ঘন চা খাওয়া। সেইসঙ্গে ধূমপান ও মদ্যপান করলে খাদ্যনালীর ক্যান্সারের আশঙ্কা আরও বেড়ে যায়। এই দিকটির কথা বিবেচনা করেই বিশেষজ্ঞরা অতিরিক্ত গরম চা খেতে নিষেধ করেছেন। বিশেষ করে যারা ধূমপান ও মদ্যপান করেন তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি থাকে অনেকটাই বেশি।

বাংলাদেশ সময়: ০৮১৩ ঘণ্টা, ১৪, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa