ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়া পড়তে আসার আগে ও পরে

মাহমুদ খায়রুল, কুয়ালালামপুর করেস্পন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ৭, ২০১৪
মালয়েশিয়া পড়তে আসার আগে ও পরে ছবি : সংগৃহীত

মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ায় পড়তে এসে প্রতারণার শিকার হচ্ছেন এমন অভিযোগ প্রচুর বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পাওয়া যাচ্ছে।

নামে বেনামে বিভিন্ন এজেন্টের মাধ্যমে সেখানে মালয়েশিয়ায় আসার পর প্রতারিত হচ্ছেন তারা।

অনেকের কাছ থেকে বেশি অর্থ হাতিয়ে নিয়েও পাঠানো হচ্ছে নিম্ন মানের প্রতিষ্ঠানে।

আর না জেনে-বুঝে এই ফাঁদে পড়ে প্রতারণার শিকার হচ্ছেন অনেক মেধাবী ছাত্র ছাত্রীরা। তাই দেশটিতে আসার আগে খুটিনাটি বিষয়গুলো জানা প্রয়োজন। নিম্নে পাঁচপি বিষয় উল্লেখ করা হলো-

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালোভাবে জানুন:

কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাচ্ছেন তার সম্পর্কে ভালো ভাবে জানুন। এজেন্টের কথায় রাজি না হয়ে নিজে থেকে কিছুটা জানার চেষ্টা করুন।

সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগে কেউ ভর্তি হয়েছে-এমন কারো সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করুন। তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে এগুলো যাচাই করা অনেক সহজ।

না জেনে বুঝে আগেই অর্থ প্রদান থেকে দুরে থাকুন। কোন প্রশ্ন থাকলে সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরাসরি যোগাযোগ করুন। ই-মেইল পাঠানোর চেষ্টা করুন। সব প্রতিষ্ঠান ভর্তি সম্পর্কিত অফার লেটার দিয়ে থাকে। এ ব্যাপারে নিশ্চিত থাকুন।     

২। আপনার উদ্দেশ্য কী?:

আপনার উদ্দেশ্য ক‍ী তা নিজেকে প্রশ্ন করুন। আপনি কী পড়াশোনা করতে যাচ্ছেন না কাজ করতে, নাকি উভয়ই? সত্যি করে বলতে চাই, কাজের পাশে পড়াশুনা করা প্রায় অসম্ভব এখানে।

প্রায় ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী কাজের চাপে পড়াশোনা ছেড়ে দেন। আর যদি পড়াশোনার জন্য আসতে চান তাহলে অবশ্যই ভালো প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে হবে। একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হবার খরচ আর বাংলাদেশে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ প্রায় এক।

৩। খরচ সম্পর্কে জানুন:
মালয়েশিয়ায় থাকা খাওয়া যাতায়াতের জন্য জন প্রতি খরচ পরবে মাসে আনুমানিক ১২০০ রিঙ্গিত। ( ১ রিঙ্গিত = ২৫ টাকা )।

এখানে সবাই রুম শেয়ার করে থাকে। এটি স্বাভাবিক। প্রতিটি অ্যাপার্টমেন্টে থাকে মাস্টার রুম, মিডেল রুম এবং স্মল রুম। যার ভাড়া যথাক্রমে ৮০০, ৫৫০ এবং ৪৫০ এর কাছাকাছি। রুম ভাড়ার ক্ষেত্রে তিন মাসের অগ্রিম ভাড়া প্রযোজ্য।

যাতায়াত মালয়েশিয়ায় একটি বড় সমস্যা। চেষ্টা করবেন কোনো ট্রেন বা বাস স্টেশনের কাছাকাছি থাকতে। ট্যাক্সি খরচ কিছুটা ব্যয় বহুল।
প্রথম এক কিলোমিটার ভাড়া দিতে হবে ৩ রিঙ্গিত। পরবর্তী প্রতি কিলোমিটার এর ভাড়া ০.৮০ করে। বাস এবং ট্রেনের ভাড়া সর্বনিম্ন  ০.৫০ রিঙ্গিত থেকে ২.৫০ রিঙ্গিত পর্যন্ত।

৪। অপরিচিত মানুষ থেকে দ‍ূরে থাকুন:
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি সবার একটি বড় অভিযোগ এখানে তারা বিদেশি থেকে দেশি মানুষদের দ্বারা বেশি প্রতারিত হন। তাই সবাইকে অনুরোধ করা হচ্ছে, কম সময়ে কাউকে বিশ্বাস করবেন না।

সবসময় সতর্ক থাকবেন। নিজের পরিচিত লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখ‍ুন। মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে মোবাইল খরচ অনেক কম।
তাই পরিবারের সঙ্গেও সবসময় যোগাযোগ রাখতে পারেন। ২৪ ঘণ্টা পুলিশের সাহায্য নিন ৯৯৯ নম্বরে কল করে।

মালয়েশিয়ায় থাকাকালীন সময় দুইটি জিনিস খেয়াল রাখবেন। এক, মোবাইলে পর্যাপ্ত চার্জ এবং ক্রেডিট। বিদেশে বাংলাদেশের মতো পথের পাশে কোনো ফ্লেক্সিলোডের দোকান নেই। দয়া করে গুরুত্ব সহকারে নেবেন বিষয়টি। হাসির বিষয় হলেও অনেক জরুরি এটি।  

৫। দক্ষতার পরিচয় দিন:
আপনি যে বিষয় সম্পর্কে জানুন না কেন? সেই টি ভালো ভাবে জানার চেষ্টা করুন। কোন ভাষা জানা থাকলে সেটি সবচেয়ে বেশি কাজে লাগাতে পারবেন।

কম্পিউটার ব্যবহারে দক্ষ হোন। নিজস্ব কৌশল কাজে লাগানোর চেষ্টা করুন। চেষ্টা করুন কোন বিষয়ের উপর বাংলাদেশ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে । বিদেশে এসব প্রশিক্ষণ নিতে অনেক অর্থের প্রয়োজন হয়। বাংলাদেশে যার মূল্য অস্বাভাবিকভাবে কম।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ০৭, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মালয়েশিয়া এর সর্বশেষ