ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মালয়েশিয়া

লোকবলের পাশাপাশি হাইকমিশনের অবকাঠামোও বাড়ানো প্রয়োজন

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭
লোকবলের পাশাপাশি হাইকমিশনের অবকাঠামোও বাড়ানো প্রয়োজন বক্তব্য দিচ্ছেন মানবাধিকার কর্মী হারুন অর রশিদ। ছবি: বাংলানিউজ

হোটেল হলিডে ইন এক্সপ্রেস (কুয়ালালামপুর) থেকে: মালয়েশিয়ায় লাখ লাখ শ্রমিক কাজ করেন। রয়েছেন অনেক ব্যবসায়ীও। তাই অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি কুলালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশনের লোকবলও বাড়াতে হবে। 

কুয়ালালামপুর শহরের হোটেল হলিডে ইন এক্সপ্রেসে বাংলানিউজ আয়োজিত আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশি ও  মানবাধিকারকর্মী হারুন অর রশিদ এসব কথা বলেন।

আরও পড়ুন>>
** 
ইতিবাচক মনোভাব তুলে ধরার আহ্বান

এশীয় অঞ্চলে অভিবাসীদের অধিকার রক্ষায় কাজ করা সংগঠন কারামএশিয়া বাংলাদেশের সাবেক এই আঞ্চলিক সমন্বয়ক বলেন, মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংখ্যা ও অবস্থান বিবেচনা করে কুয়ালালামপুরস্থ হাইকমিশনেও জনবল বাড়াতে হবে।

 

‘পাশাপাশি হাইকমিশনের অবকাঠামোগত উন্নয়নও প্রয়োজন। যাতে এখানেই সব ধরনের সেবা দ্রুত পেতে পারেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। ’

প্রবাসী বাঙালিদের ভালো ভাবমূর্তি তুলে ধরতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে এ মানবাধিকারকর্মী বলেন, এটি করতে পারলে আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছে যাবো।

অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়া প্রবাসীদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন হারুন অর রশিদ।  

তিনি বলেন, সরকারের উচ্চমহল থেকে প্রবাসীদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করতে হবে। মালয়েশিয়া সরকারকে বোঝাতে হবে বাংলাদেশে শ্রমিক পাঠিয়ে শুধু বাংলাদেশ লাভবান হচ্ছে না এর থেকে বেশি লাভবান হচ্ছে মালয়েশিয়া।  

‘আর শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে রাষ্ট্রীয় ভূমিকা জরুরি। সম্মিলিতভাবে শ্রমিকদের সমস্যার সমাধান সম্ভব। যা দুই দেশের সরকারের আলাপ-আলোচনা করেই সমাধান করতে হবে। ’
 
তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় হাইকমিশনারের পাশাপাশি এখানকার স্থানীয় বিভিন্ন ইউনিটির মাধ্যমেও কিছু সমস্যা সমাধান করা যায়। যেমনটা করছে নেপাল, কম্বোডিয়া ও ভিয়েতনাম। এ ক্ষেত্রে তারা অনেক সোচ্চার।  

‘কিন্তু আমরা সেইভাবে উদ্যোগ নিতে পারছি না। শ্রমিকদের সম্মান ও মর্যাদা রক্ষায় রাষ্ট্রকে আরও উদ্যোগী হতে হবে,’ বলেন এই প্রবাসী।  

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় বিকেল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা) কুয়ালালামপুর শহরের হোটেল হলিডে ইন এক্সপ্রেস মিলনায়তনে এ আলোচনা ও মতবিনিময় সভা শুরু হয়।
 
বাংলানিউজের এডিটর ইন চিফ আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম।  

উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির শীর্ষ নেতারাও।

এর আগে প্রায় সপ্তাহজুড়ে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চল ঘুরে প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাজের ক্ষেত্র নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে বাংলানিউজ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৭
এমআইএস/এমএ
...

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa