ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

বিয়েবাড়িতে সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত, বরসহ কারাগারে ১২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০২২
বিয়েবাড়িতে সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত, বরসহ কারাগারে ১২ সংঘর্ষে হতাহতের পর কনের বাড়িতে স্বজনদের আহাজারি। ছবি: বাংলানিউজ

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটায় বিয়েবাড়িতে গহনা নিয়ে বর ও কনে পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (০২ ডিসেম্বর) দুপুরের পর এ ঘটনায় আটক বরসহ বরপক্ষের ১২ জনকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার (০১ ডিসেম্বর) রাতে নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার কেদার ইউনিয়নের গোলের হাট গ্রামে কনের বাড়িতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা এলাকার গোলেরহাট গ্রামের নূর জামাল ইসলামের মেয়ে জেসমিন আকতারের সঙ্গে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের ঘুন্টিঘর এলাকার আলীফ উদ্দিনের ছেলে রাইসুল ইসলাম রিপনের বিয়ে ঠিক হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে বরযাত্রী কনের বাড়িতে খাওয়া শেষে কনে সাজাতে গিয়ে বর পক্ষের দেওয়া গহনা নিয়ে দু’পক্ষের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কনের দাদিসহ কনেপক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়। এরমধ্যে গুরতর আহত অবস্থায় কনের দাদি তহুরন নেছাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে কচাকাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বরসহ ১২ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মর্তুজা বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। রাতেই বরপক্ষের ১২জনকে আটকও করা হয়েছে। শুক্রবার তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদশে সময়: ১৫০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০২, ২০২২
এফইএস/এসএ


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa