ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

‘পানি সম্পর্কিত এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কাজ করছে সরকার’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৫২ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩
‘পানি সম্পর্কিত এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কাজ করছে সরকার’

ঢাকা: পানি সম্পর্কিত এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, ২০৩০ সালের মধ্যে সরকার পানি, পয়োনিষ্কাশন ও স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কিত এসডিজি-৬ অর্জনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

সেই লক্ষ্য অর্জনে নানাবিধ কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করা হয়েছে এবং সে অনুযায়ী আমরা ধাপে ধাপে এগিয়ে চলেছি।

সোমবার (২০ মার্চ) ‘পানি ও পয়োনিষ্কাশন সংকট সমাধানে পরিবর্তন ত্বরান্বিতকরণ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে দৈনিক ভোরের কাগজ ও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ।

এলজিআরডি মন্ত্রী আরও বলেন, এক সময় পানির জন্য রাস্তায় মানুষ বিক্ষোভ করত। কিন্তু এখন চিত্র বদলেছে। ঢাকা শহরে শতভাগ পানি নিশ্চিত করা সম্ভব হয়েছে। চট্টগ্রামে, খুলনা ও রাজশাহীতেও তা করা হয়েছে। প্রতিটি মহানগরীতে ওয়াসা স্থাপনের মাধ্যমে ভূ-উপরিস্থ পানি শোধনাগার স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

অভিজাত এলাকায় বিত্তবান মানুষদের ভর্তুকি মূল্যে পানি, বিদ্যুৎ এবং গ্যাস সরবরাহের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি আরও বলেন, বিত্তবানেরা কেন ভর্তুকিতে পানি কিনবেন? যেখানে প্রতি এক হাজার লিটার পানির উৎপাদন খরচ ২৬ টাকা। এটা তো সমতা হলো না। তাহলে তো বস্তির গরীব মানুষের জন্য যেসব সুবিধা তা ধনীদের পকেটে চলে যাচ্ছে। এই ব্যবস্থার পরিবর্তন দরকার। প্রয়োজনে কৃষি উৎপাদনে সরকার ভর্তুকি দিতে পারে।

মন্ত্রী বলেন, শুধু আমাদের দেশে নয়, উন্নত অনেক দেশও এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে হিমশিম খাচ্ছে। কিন্তু করোনা ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ আমাদের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করার পরও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এগিয়ে চলেছি।  

এ সময় পানি সম্পদের প্রাপ্যতা ও ব্যবস্থাপনা এবং সকলের জন্য স্যানিটেশন নিশ্চিতকরণে দেশে বিদ্যমান কার্যক্রমের গতি আরও  বাড়ানোর উপর গুরুত্বারোপ করেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী।

ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্তের সঞ্চালনায় সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন- ফোরাম ফর পাবলিক হেলথের নির্বাহী পরিচালক এস এম এ রশীদ, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সরোয়ার হোসেন, ইউনিসফের ওয়াস বিশেষজ্ঞ শফিকুল আলম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২২৫১ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩

এসসি/এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।