ঢাকা, সোমবার, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ০৫ জুন ২০২৩, ১৬ জিলকদ ১৪৪৪

জাতীয়

নড়িয়া-সখিপুর নৌপথে কমলো ট্রলার ভাড়া

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
নড়িয়া-সখিপুর নৌপথে কমলো ট্রলার ভাড়া

শরীয়তপুর: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীমের নির্দেশে কমলো নড়িয়া-সখিপুর নৌপথে ট্রলার ভাড়া।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) প্রথম রমজান থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হয় বলে জানিয়েছেন নড়িয়া-সখিপুরের সবকয়টি ট্রলার ঘাট কর্তৃপক্ষ।

 

জানা গেছে, আলুর বাজার ফেরিঘাট থেকে চাঁদপুর, উত্তর তারাবুনিয়া থেকে চাঁদপুর, দুলারচর থেকে কাঁচিকাটা, চরআত্রা থেকে সুরেশ্বর, চরআত্রা থেকে ওয়াপদা, নওপাড়া থেকে দিঘিরপাড়, নওপাড়া থেকে হাসাইল, নওপাড়া থেকে চাঁদপুরসহ পানিসম্পদ উপমন্ত্রীর নির্বাচনী আসনের সব নৌপথে ভাড়া কমানো হয়েছে।  

পবিত্র মাহে রমজান ও সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করেই এ ভাড়া কমানো হয়েছে। এতে করে স্বস্তি ফিরেছে ওই অঞ্চলের নৌপথে যাতায়াতের।  

নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন মুন্সী বলেন, নওপাড়া থেকে হাসাইল,দিঘিরপাড়ের আগে ট্রলার ভাড়া ছিল ৪০ টাকা। তা কমিয়ে এখন ৩০ টাকা করা হয়েছে। পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীমের নির্দেশনায় পহেলা রমজান থেকেই এ নির্দেশনা কার্যকর হয়েছে।

চরআত্রা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. এনায়েত উল্লাহ মুন্সী বলেন, আমাদের মন্ত্রী এনামুল হক শামীম নির্দেশ দিলে চরআত্রা থেকে সুরেশ্বর ও ওয়াপদা নদী পথে ট্রলার ভাড়া কমানো হয়। আগে ট্রলার ভাড়া ছিল ৪০ টাকা। বর্তমানে ভাড়া ৩০ টাকা করে নির্ধারণ করা হয়েছে।

কাঁচিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান বলেন, সাধারণ মানুষের কল্যাণে উপমন্ত্রীর নির্দেশে কাঁচিকাটা থেকে চাঁদপুর, সুরেশ্বর, ওয়াপদা লাইনের ট্রলার ভাড়া কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। ৭০ টাকার ভাড়া কমিয়ে ৬০ টাকা করা হয়েছে। ৪০ টাকার ভাড়া কমিয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। উত্তর তারাবুনিয়া স্টেশন বাজার থেকে চাঁদপুর ২৫ টাকা করা হয়েছে, যা আগে ছিল ৪০ টাকা।

কলেজশিক্ষার্থী নাজমুল, ফারুক, সাদিয়া, নুপুর বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনের যাতায়াতের কথা চিন্তা করেই ট্রলার ভাড়া কমানোর উদ্যোগ নিয়েছেন উপমন্ত্রী। এতে করে আমরা অল্প খরচেই কলেজে পড়াশোনা করতে যেতে পারি।  

ট্রলার দিয়ে নদী পার হয়ে সুরেশ্বর যাওয়ার সময় জেলে আব্বাস মিয়া বলেন,আগে ট্রলার ভাড়া বেশি আছিল। আমাগো তন ভাড়া নিত ৪০ টাকা কইরা, যাইতে আইতে ৮০ টাকা। আর এহন মন্ত্রী ট্রলার ভাড়া কমাইয়া দেওয়ায় ৩০ টাকা কইরা যাওন আহনের ভাড়া ৬০ টাকা। আমার ২০ টাকা সেভ হইছে। আমাগো অনেক উপকার হইল। দোয়া করি শেখ হাসিনায় ভালা থাহুক, আমাগো মন্ত্রী শামীম সাহেবও ভালা থাহুক।

কৃষক মুজাম্মেল ও আক্কাস বলেন, আগে কহনো এমন ভাড়া কমাইতে কাউরে দেখি নাই। আমাগো কথা চিন্তা কইরা মন্ত্রী ভাড়া কমাইছে। মন্ত্রী একটা কামের কাম করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারে আল্লাহ বাচায়া রাখুক,আমাগো মন্ত্রীরে আল্লাহ বাচায়া রাখুক এই দোয়াই করি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দীন ও স্কুল শিক্ষক মফিজ মাস্টার বলেন, এই প্রথম নওপাড়ার মতো চরের মানুষদের নিয়ে ভাবার মতো কাউকে দেখলাম। আমাদের মন্ত্রী এনামুল হক শামীম আমাদের ট্রলার ভাড়া কমিয়েছে। এ কারণে অনেক উপকৃত হয়েছি আমরা।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯২৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
এসএএইচ
 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa