ঢাকা, বুধবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

অভিযানে গিয়ে সাঁতরে রক্ষা পেলেন ইউএনও-এসিল্যান্ড-ওসি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩
অভিযানে গিয়ে সাঁতরে রক্ষা পেলেন ইউএনও-এসিল্যান্ড-ওসি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: অবৈধ বালু উত্তোলনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালাতে গিয়ে তিতাস নদীর মাঝে নৌকা ভেঙে ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় নৌকায় থাকা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পানিতে পড়ে যান।

 

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত ১২টার দিকে সদর উপজেলার কাঞ্চনপুরে এই ঘটনা ঘটে।  

পরে কর্মকর্তারা সাঁতার কেটে নদীর তীরে পৌঁছুতে সক্ষম হন। পরে বিষয়টি বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) জানাজানি হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতে থাকা কয়েকজন জানান, সদর উপজেলার কাঞ্চনপুরে তিতাস নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজারে বালু উত্তোলনের খবর পাওয়া যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সেলিম শেখের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযানে যায়। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোশারফ হোসেন ও সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসাইনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল। ভ্রাম্যমাণ আদালতের দলটি নৌকাযোগে তিতাস নদীতে ড্রেজারে বালু উত্তোলনের স্থানে যাচ্ছিলেন। নৌকাটি কিছুদূর যাওয়ার পর মাঝে ভেঙে ডুবে যায়। এতে নৌকায় থাকা ইউএনও, এসিল্যান্ড ও ওসিসহ সবাই পানিতে পড়ে যায়। মধ্যরাতে অন্ধকারে নদীতে এই ঘটনা ঘটায় এক ভীতিকর পরিবেশ তৈরি হয়। পরে তারা সাঁতরে নদীর তীরে উঠেন।  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসাইন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।  

তিনি বলেন, আমি ভেবেছিলাম কাছাকাছি কোনো জায়গায় যাবে। নৌকা উনারাই নিয়েছিলেন। তবে এই ঘটনায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

এই বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সেলিম শেখ বলেন,  নৌকাটি অনেক নড়বড়ে ছিল। তবে কোনো দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।