ঢাকা, শনিবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

ছেলেকে ধরতে এসে মাকে তুলে নিয়ে গেল পুলিশ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২৩
ছেলেকে ধরতে এসে মাকে তুলে নিয়ে গেল পুলিশ

কুমিল্লা: কুমিল্লায় আসামিকে না পাওয়ায় তার মাকে থানায় তুলে নিয়ে গেছে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ। পুলিশ উপ পরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম এ কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

যদিও পুলিশ বলছে, ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কারণেই ওই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  

এদিকে রোববার (৩ ডিসেম্বর) আদালতে জামিন চেয়েও পাননি ওই নারী।

জানা যায়, গত ১৭ জুলাই উপজেলার বক্সগঞ্জ ইউপির চান্দপুর গ্রামের মুন্সি মিয়ার ছেলে রবিউল (২৩) এবং একই গ্রামের জাহাঙ্গীরের মেয়ে বিবি মরিয়ম (১৮) পালিয়ে বিয়ে করেন। মেয়ের প্রেমের বিয়ে মেনে নিতে না পেরে গত ২ আগস্ট মেয়ের বাবা জাহাঙ্গীর বাদী হয়ে জামাইসহ একই পরিবারের চারজনের বিরুদ্ধে থানায় অপহরণ মামলা করেন।

মামলায় জামাই রবিউল হোসেন, তার সেজো ভাই আমির হোসেন, বড় ভাই মোস্তফা এবং বোন তাজনেহার বেগমকে আসামি করা হয়। ১নং আসামি রবিউল ছাড়া বাকি আসামিরা জামিনে মুক্ত রয়েছেন।

গত বুধবার (২৯ নভেম্বর) ১নং আসামি রবিউলকে বাড়িতে না পেয়ে তার মা আনোয়ারা বেগমকে (৭০) পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন তার ছেলে আমির হোসেন।

তিনি বলেন, আমার মা বয়স্ক মানুষ, তিনি ওয়ারেন্টভুক্ত ও এজাহারভুক্ত আসামি না। পুলিশ হয়রানি করার জন্য আমার মাকে গ্রেপ্তার করেছে। আমার ভাই রবিউলের সঙ্গে আমাদের কোনো যোগাযোগ নাই।

নাঙ্গলকোট থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, তদন্তে আনোয়ারার সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। তিনি ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন বাসায় রেখে ছেলের সঙ্গে দেখে করতে যান। তথ্য গোপন করার দায়ে আনোয়ারাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২১১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।