ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ছিনতাইয়ের ১৩ ঘণ্টা পর বাইক উদ্ধার, স্বর্ণালংকারের খোঁজে পুলিশের অভিযান 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
ছিনতাইয়ের ১৩ ঘণ্টা পর বাইক উদ্ধার, স্বর্ণালংকারের খোঁজে পুলিশের অভিযান 

বাগেরহাট: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে জুয়েলার্স ব্যবসায়ীকে মারধর করে মোটরসাইকেল, ১৬০ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ দুই লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ১৩ ঘণ্টা পরে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে কুঠিবাড়ি এলাকায় পানগুছি নদীর চর থেকে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়।

এর আগে শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টার দিকে পৌরসভার সেরেস্তাদারবাড়ি এলাকা থেকে নিলয় জুয়েলার্সের মালিক মিলন কর্মকারকে মারধর করে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ ব্যাগ ও মোটরসাইকেল নিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে মিলন কর্মকার বলেন, দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরছিলাম। বাড়ির রাস্তায় প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে সামনে একটি মোটরসাইকেল আমার গতিরোধ করে। মোটরসাইকেল থামালে কয়েকজন এসে আমাকে মারধর শুরু করে এবং গলা চেপে ধরে। এক পর্যায়ে আমি জ্ঞান হারালে মৃত ভেবে, সবকিছু নিয়ে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। মোটরসাইকেলের সিটের নিচে তিনটি ব্যাগে আমার দোকানের ১০০ ভরি এবং শ্যালকের দোকানের ৬০ ভরি মোট ১৬০ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও নগদ আড়াই লাখ টাকা  ছিল।

তবে গতকাল রাতে স্বর্ণের পরিমাণ ১০০ ভরি বলেছিলেন এই ব্যবসায়ী।
এদিকে এভাবে স্বর্ণ ছিনতাইয়ের ঘটনায় বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

মোরেলগঞ্জ বাজার জুয়েলারি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি অসীম কুমার কর্মকার বলেন, এর আগেও বাজারের জুয়েলারি থেকে স্বর্ণ ছিনতাই হয়েছিল। এবার বাড়ির সামনে থেকে এভাবে ছিনতাই হলো, এ ব্যবসায়ী তো নিঃস্ব হয়ে গেল। আমরা ব্যবসায়ীরা এক ধরনের আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি।  

অতিদ্রুত ছিনতাইকারীদের শনাক্ত ও স্বর্ণ উদ্ধারের দাবি জানান এই ব্যবসায়ী নেতা।  

এদিকে ছিনতাইয়ের ঘটনার পরে বাগেরহাট পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ও জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পৃথক দুটি দল রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

** মোরেলগঞ্জে ১০০ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা ছিনতাই

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।