ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

কালকিনিতে ৩ জনকে হাতুড়িপেটা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
কালকিনিতে ৩ জনকে হাতুড়িপেটা

মাদারীপুর: মাদারীপুরের কালকিনিতে এক কৃষক ও তার পরিবারের তিন সদস্যকে হাতুড়িপেটার অভিযোগ উঠেছে।  

সোমবার (২২ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে কালকিনি উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের কোলচরি সস্তাল গ্রামের এ ঘটনা ঘটে।

 

হাতুড়িপেটায় আহতরা হলেন- ওই এলাকার মৃত হামেদ আলী মোল্লার ছেলে মুজাফফর মোল্লা (৪০), মৃত আব্দুর রাজ্জাক মোল্লার ছেলে ফরহাদ মোল্লা (৪৮) ও আলী আজগর মোল্লার ছেলে শহিদুল মোল্লা (৪২)।  

জানা গেছে, সোমবার রাতে ফাঁসিয়াতলা বাজার থেকে ব্যক্তিগত কাজ শেষে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন মুজাফফর মোল্লা। বাড়ির কাছকাছি এলে লোকজন নিয়ে সড়কে গতিরোধ করে আলীপুর গ্রামের ইব্রাহিম সরদার ও লতিফ সরদার। পরে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে মুজাফফরকে এলোপাতাড়ি হাতুড়িপেটা করা হয়।  

মুজাফফরের চিৎকারে পাশে থাকা চাচা ফরহাদ ও চাচাতো ভাই শহিদুল এগিয়ে এলে তাদেরও হাতুড়িপেটা করা হয়। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা।

গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কৃষক মুজাফফরকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্বজনদের অভিযোগ, পূর্ব শত্রুতার জেরে ইব্রাহিম সরদার ও লতিফ সরদার দলবল নিয়ে এ হামলা চালিয়ে। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী। ঘটনার পর পলাতক রয়েছেন অভিযুক্তরা।

আহত মুজাফফর মোল্লা বলেন, বাড়ি ফেরার পথে হঠাৎ লোকজন নিয়ে প্রথমে আমার ওপরে, পরে আমার চাচা ও চাচাতো ভাইয়ের ওপরও হামলা চালানো হয়। পূর্ব শত্রুতার জেরে ইব্রাহিম সরদার ও লতিফ সরদার লোকজন নিয়ে এ হামলার চালান। এর কঠিন বিচার চাই।

মুজাফফরের চাচা ফরহাদ মোল্লা বলেন, প্রথমে হামলা থামানোর চেষ্টা করি। পরে আমার ওপরও হামলা চালানো হয়। আমাকেও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।