ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১৮ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

পণ্য মজুদের শাস্তি যাবজ্জীবন জেল রেখে আইন হচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩২ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০২৪
পণ্য মজুদের শাস্তি যাবজ্জীবন জেল রেখে আইন হচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: কেউ যাতে অতিরিক্ত মজুদ করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে না পারে সেজন্য মজুদদারদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।  

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ সাইলোর বিএমআরই (সংস্কার কাজ) শেষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

 

এসময় মন্ত্রী আরও বলেন, দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু বিপণন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সরকার আইন প্রনয়ণসহ নানামুখী উদ্যোগ নিয়েছে। সে আলোকে কৃষির উৎপাদন বাড়াতে ভর্তুকিসহ উচ্চ ফলনশীল জাতের উদ্ভাবন করা হচ্ছে। যেখানে আগে বিঘা প্রতি আট থেকে ১০ মণ ধান হতো, এখন সেখানে ৩০/৩৫ মণ ধান হচ্ছে। কেবল প্রাকৃতিক দুর্যোগ ছাড়া দেশ খাদ্যে শুধু স্বয়ংসম্পূর্ণই নয় বরং প্রতিবছরই উদ্ধৃতও থাকে।

এছাড়া তিনি বলেন, প্রতি বছর দেশে চার থেকে সোয়া চার কোটি টন ধান উৎপাদিত হলেও চক চকে চাল করতে গিয়ে অতিরিক্ত ছাটাই করা হয়। এতে চালের পুষ্টিগুণ নষ্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রায় ১৬ লাখ মেট্রিকটন চাল নষ্ট হয়। তাই পুষ্টিগুণ বজায় রেখে ধান থেকে চালের উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি উৎপাদন ব্যয় কমাতেও উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। যার সুফল মিলবে ভোক্তাপর্যায়ে।  

তিনি বলেন, আগামী ডিসেম্বর নাগাদ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ চাল সংরক্ষণের জন্য স্টিল সাইলোটির উদ্বোধন করা হবে।  
 
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক  মো. হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. মঈন উদ্দিন মঈন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইসমাইল হোসেন, খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. শাখাওয়াত হোসেন, অতিরিক্ত মহা পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মো. সাখাওয়াত হোসেন, আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জিয়াউল করিম খান সাজু ও আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্কর্তা শ্যামল চন্দ্র বসাক। স্বাগত বক্তব্য দেন সাইলো অধিক্ষক সিরাজুস সালেকিন।  

প্রায় ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে গম সংরক্ষণের জন্য ৫০ হাজার মেট্রিকটন ধারণ ক্ষমতার আশুগঞ্জ সাইলোর বিএমআরই (সংস্কার কাজ) করা হয়। ফলে এখন থেকে ৫০০ এর বদলে ৮০০ থেকে এক হাজার মেট্রিকটন গম দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।