ঢাকা, শনিবার, ৭ আশ্বিন ১৪৩০, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

বর্ষবরণ

বর্ণিল ঢাকায় নিরাপত্তা ও যানজট

মফিজুল সাদিক, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১৬
বর্ণিল ঢাকায় নিরাপত্তা ও যানজট ছবি: রাজিব- বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: বিদায় ২০১৫। নতুন বছর ২০১৬ সাল।

ঘড়ির কাটা ১২টার ঘরে আসার সঙ্গে সঙ্গে নানা আয়োজন শুরু হয়ে যায় রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে। যে যেভাবে পেরেছেন; নতুন বছরকে বরণ করে নিয়েছেন। এই বছরটা যাতে অনেক ভালো যায়- সেই লক্ষ্যে একে অপরকে শুভেচ্ছা জানান।
 
ঢাকার ওয়েস্টিন, রেডিসন হোটেলসহ থার্টিফার্স্ট নাইট ও ইংরেজি নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে সবগুলো অভিজাত হোটেল সেজেছে রঙিন সাজে। বাদ যায়নি রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক, ফ্লাইওভার ও ফুটপাতও। বড় বড় ভবনেও শোভা পাচ্ছে আলোকসজ্জা। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা, সরকারি-বেসরকারি ভবন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাজানো হয়েছে লাল-নীল রঙিন আলোয়।

বড় বড় স্থাপনাগুলোতে চোখ ধাঁধানো আলোকসজ্জা শোভা পাচ্ছে। পুরো রাজধানীকে দেখে মনে হচ্ছে- এ যেন নববধূর রঙিন সাজ। এছাড়া এয়ারপোর্ট রোড, উত্তরা, শাহবাগ, মৎস্য ভবনসহ সড়কের মোড়ে মোড়ে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। ঢাকার এ নতুন সাজ যেন ইংরেজি নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার ‍আনন্দ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

সাজ-সজ্জায় মোড়ানো ঢাকা ঢেকেছে নিরাপত্তার চাদরেও। রাজধানীর অভিজাত এলাকা বনানী, গুলশান ও কূটনৈতিক পাড়ায় ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে সব ধরনের যান চলাচলে ছিল নিয়ন্ত্রণে। সঙ্গে কড়া নিরাপত্তাও।   এসব এলাকায় প্রাইভেট কার প্রবেশ করলেও তল্লাশি করা হয়। বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) রাত ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এমন নিরাপত্তা থাকছে। ডগ স্কোয়াড দিয়ে বিভিন্ন যানবাহনে ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের তল্লাশি চালাচ্ছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।
 
নগরীর বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতিও লক্ষ্যণীয়।
 
বৃহস্পতিবার দিনগত রাত দেড়টায় গুলশান-২ নম্বরে আমেরিকান অ্যাম্বাসির কাছে চেক পোস্টে কথা হয় দায়িত্বে নিয়োজিত এসআই মোহাম্মদ রাহুলের সঙ্গে।
 
তিনি বাংলানিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে ডিউটি শুরু হয়েছে। যা চলবে শুক্রবার (০১ জানুয়ারি) সকাল ৮টা পর্যন্ত। কিছু কিছু প্রাইভেট কার এসব এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের দেহ তল্লাশি করা হচ্ছে।

নতুন বছরের নিরাপত্তায় মোড়া বর্ণিল ঢাকায় অনেক সড়কও ছিল বন্ধ। বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। যেমন গুলশান, বনানী ও কূটনৈতিক পাড়ায় হাতে গোনা কয়েকটি সড়ক দিয়ে প্রবেশ করা গেছে।   এতে করে রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দেখা গেছে রেডিসন হোটেলের সামনে থেকে মহাখালী পর্যন্ত ভয়াবহ যানজট। হাতিরঝিলে প্রবেশের সড়কও ছিল বন্ধ। এতে করে রামপুরা থেকে নতুন বাজার আসার সড়কে দেখা দেয় ভয়াবহ যানজট। এক কথায় নববর্ষ উপলক্ষে নিরাপত্তায় মোড়া ঢাকা ছিল যানজটের দখলে।
 
** গুলশান-বনানীতে নিরাপত্তা জোরদার, ডগ স্কোয়াড দিয়ে তল্লাশি

বাংলাদেশ সময়: ০৪১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০১৬
এমআইএস/আইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa