ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৫ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

বিয়েতে খাবার কম দেওয়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১২০ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২২
বিয়েতে খাবার কম দেওয়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরায় বিয়ে বাড়িতে খাবার কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে বর ও কনে পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন।

শুক্রবার (২০ মে) রায়পুরার হরিপুর গ্রামে ঘটে এ ঘটনা। এদিকে উভয় পক্ষের মারামারি ও সংঘর্ষের কারণে বিয়ে না করেই ফিরে যান বর। এতে রাগে-ক্ষোভে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন কনে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, রায়পুরার মুসাপুর ইউনিয়নের পূর্ব হরিপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ের সঙ্গে একই উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের আতাউর মিয়ার ছেলের দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই সূত্রে দুই পরিবারের সম্মতিতে শুক্রবার তাদের বিয়ের দিন ঠিক করা হয়। দুপুরের পর বরযাত্রী আসলে খাওয়া-দাওয়া শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে বরপক্ষকে খাবার কম দেওয়ায় বরের বাবা রফিকুল ইসলাম ক্ষিপ্ত হন। এক পর্যায়ে তিনি খাবার ভর্তি প্লেট ছুড়ে ফেলে দেন। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে সেটি হাতাহাতি ও মারামারিতে রুপ নেয়। এতে স্থানীয় সাংবাদিকসহ দুপক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। এরপর খবর পেয়ে রায়পুরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় বিয়ে না করেই বরসহ বরযাত্রীরা ফিরে যান। আর বিয়ে ভেঙ্গে যাওয়ায় আত্মহত্যার চেষ্টা করেন কনে।

রায়পুরা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) রাকিবুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, বর পক্ষকে খাবার কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেননি।

বাংলাদেশ সময়: ১১১৯ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২২
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa