ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

থমকে আছে বিমানবন্দর সড়ক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২, ২০২২
থমকে আছে বিমানবন্দর সড়ক বিমানবন্দর সড়কে যানজট

ঢাকা: একাধিক উন্নয়ন কাজের ধাক্কায় স্বাভাবিক সময়েই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে থাকে যানবাহনের ধীরগতি। এরমধ্যে রোববার (২ অক্টোবর) সকালে হওয়া বৃষ্টির কারণে প্রায় থমকে গেছে পুরো সড়ক।

এদিন বনানী থেকে বিমানবন্দরমুখী এবং উত্তরা থেকে বিমানবন্দরমুখী সড়ক স্থবির হয়ে পড়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টাদাড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে যানবাহনগুলোকে। অতিষ্ঠ হয়ে একপর্যায়ে পায়ে হেঁটেই যাত্রীদের গন্তব্যের দিকে রওনা দিতে দেখা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ঢাকা থেকে গাজীপুরমুখী যাননবাহনের মাত্রাতিরিক্ত স্থিরগতির কারণে সড়কের উভয়পাশেই তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাব পড়েছে রাজধানীর অভ্যন্তরের সড়কগুলোতে। বিম্নবন্দরমুখী গাড়ির জটলা বনানী ছাড়িয়ে মহাখালী পর্যন্ত ঠেকেছে। আর অপরদিকে বাড্ডা এলাকা ছাড়িয়ে গেছে যানজট।

এদিন সকাল থেকে দুপুর গড়িয়ে গেলেও আব্দুল্লাহপুর থেকে উত্তরা, এয়ারপোর্ট, খিলক্ষেত, বিশ্ব রোড, বনানী, কুড়িল প্রগতি স্বরণিজুড়েই তীব্র যানজট দেখা গেছে।

মোহাম্মদপুরের শিয়া মসজিদ থেকে আব্দুল্লাহপুরগামী আলিফ পরিবহনের যাত্রী রাতুল জানান, শিয়া মসজিদ থেকে বনানী পর্যন্ত আসতে ঘণ্টাখানেক সময় লেগেছে। এরপর বনানীতেই গাড়ি দাঁড়িয়ে আছে এক ঘণ্টার বেশি। উত্তরায় অফিস হওয়ায় নেমে হেঁটে যাওয়াও সম্ভব হচ্ছে না। স্বাভাবিক সময়ে সর্বোচ্চ ২ ঘণ্টায় অফিস গেলেও আজ কতো ঘণ্টা লাগবে তার ঠিক নেই।

সোহান আহমেদ নামের আরেক যাত্রী বলেন, যানজটের কারণে মহাখালী থেকে বনানী যাওয়ার জন্য হাঁটা শুরু করেছি। রাস্তায় মানুষের চাপের কারণে ঠিকমতো হাঁটাও কষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

নতুনবাজার থেকে কুড়িল পর্যন্ত ২ ঘণ্টায় এসেছেন আছিম পরিবহনের চালক ফারুক। তিনি জানান, পুরো সড়কই থমকে আছে, গাড়ি চলছেনা বললেই চলে। যাত্রীরা বেশি যানজট দেখলে নেমে যেতে পারলেও তাদের নিস্তার নেই। যত ঘণ্টাই লাগুক তাদেরকে বাধ্য হয়েই বসে থাকতে হবে।

 ডিএমপির ট্রাফিক উত্তর বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো. বদরুল হাসান জানান, বিমানবন্দর সড়ক বলতে গেলে স্থবির হয়ে আছে। ঢাকা থেকে কোনো গাড়ি বের হতে ও ঢাকায় প্রবেশ করতে পারছেনা। এর ফলে গাড়ির জটলা বাড়তে বাড়তে রাজধানীর ভেতরেও এর প্রভাব পড়েছে।

তিনি বলেন, বিমানবন্দর এলাকার রাস্তায় ও গাজীপুরের সড়কে চলমান উন্নয়ন কাজের প্রভাবের সঙ্গে যোগ হয়েছে বৃষ্টি। জলাবদ্ধতার কারণে যানবাহনের স্থিরগতি থেকে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে।  যানচলাচল স্বাভাবিক রাখতে ট্রাফিক বিভাগ সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে বলেও জানান  ট্রাফিক পুলিশের এই কর্মকর্তা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৪ঘণ্টা, অক্টোবর ০২, ২০২২
পিএম/ইআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa