ঢাকা, রবিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

অফবিট

সন্তান হত্যার প্রতিশোধ নিতে ২৫০ কুকুরছানা খুন!

অফবিট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০২১
সন্তান হত্যার প্রতিশোধ নিতে ২৫০ কুকুরছানা খুন!

বানরের প্রতিশোধ কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের বিড় জেলার মজলগাঁও এলাকার একটি গ্রামের বাসিন্দারা।

গ্রামবাসীদের দাবি, গত মাসখানেক আগে একটি বানরের ছানাকে মেরে ফেলেছিল এক দল কুকুর।

তারপর থেকে এলাকা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বানরের একটি বিশাল দল। কুকুরছানা দেখলেই তুলে নিয়ে উঁচু জায়গা থেকে ফেলে মেরে ফেলছে তারা। গত মাসে বানরের হানায় অন্তত ২৫০ কুকুর ছানার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা। বানরের দলের দাপটে আতঙ্ক ছড়িয়েছে গ্রামবাসীদের মধ্যেও।

মজলগাঁও থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত লাভুল গ্রাম। গ্রামটিতে পাঁচ হাজার মানুষের বাসবাস। গ্রামবাসীদের দাবি, বর্তমানে ওই গ্রামে আর কোনো কুকুর ছানাই বেঁচে নেই।

তাদের অভিযোগ, গত মাসে অন্তত ২৫০ কুকুক ছানাকে মেরে ফেলেছে ‘ক্ষিপ্ত’ বানরের দল।

গ্রামবাসীরা আরও জানায়, বানরদের প্রতিশোধের জেরেই এই অবস্থা।  একটি বানরছানাকে এক দল কুকুর মেরে ফেলার পর থেকেই এ ঘটনার সূত্রপাত।

গ্রামবাসীর দাবি, বানরদল কুকুরছানা দেখলেই তুলে নিয়ে চলে যাচ্ছে। তার পর উঁচু জায়গা থেকে তাদের ছুড়ে ফেলে মারছে। এর জেরে প্রায় ২৫০ কুকুরছানার মৃত্যু হয়েছে। এখন ওই গ্রামে একটিও কুকুরছানা বেঁচে নেই বলেও দাবি গ্রামবাসীদের।

বানরের প্রতিশোধের হাত থেকে বাঁচতে গ্রামবাসীরা বন দফতরের শরণাপন্ন হয়েছিলেন। তাদের অভিযোগ, বন দফতর একটিও বানরকে ধরতে পারেনি। কিছু গ্রামবাসীরা বানরদের হাত থেকে কুকুছানাদের বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন। তা করতে গিয়ে উঁচু থেকে পড়ে বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীও আহত হয়েছেন।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, কুকুরছানাদের মেরেও ক্ষান্ত হয়নি বানরের দল। গ্রামের ছোট ছেলে-মেয়েদের ওপরও সুযোগ পেলেই হামলা চালাচ্ছে বানর দল। গোটা বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে ওই এলাকায়।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০২১
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa