ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে বিএনপি নেতাদের শ্রদ্ধা

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০২২
বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে বিএনপি নেতাদের শ্রদ্ধা ছবি: জি এম মুজিবুর 

ঢাকা: মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপি নেতা-কর্মীরা। সকাল ১০ টার দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খানসহ অন্যান্য নেতারা।

ড. আব্দুল মঈন খান বাংলানিউজকে বলেন, আপনারা জানেন যে স্বাধীনতার ঠিক পূর্বমুহূর্তে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসর আলবদর বাহিনী তারা হঠাৎ করেই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে শিক্ষকতা করতেন তাদের হত্যা করেছিল। তারা জানতো, তারা বুঝতে পেরেছিল, বাংলাদেশ স্বাধীন হবে, স্বাধীনতা তারা ঠেকাতে পারবে না। বুঝতে পেরেই এই ঘৃণ্য কাজটি তারা করেছিল। তারা জানত, একটি দেশের উন্নতি নির্ভর করে দেশের শিক্ষিত সমাজের ওপরে। শিক্ষিত সমাজকে যদি ধ্বংস করে দিতে পারে, তারা বাংলাদেশের উন্নয়নকে ব্যাহত করতে পারবে। সে কুচিন্তা থেকে এই ঘৃণ্য কাজটি করেছে।

তিনি বলেন, আজকে আমরা শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করি, তাদের চিরদিন স্মরণ করব।

সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, বর্তমান সরকারও এই দেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে। তাদের মূল উদ্দেশ্য, তারা  চায় না দেশের মানুষ শিক্ষিত হোক। দেশের মানুষ শিক্ষিত হলে তারা অধিকারের কথা বলবে, গণতন্ত্র ও ভোটের কথা বলবে। কথা বলার স্বাধীনতা চাইবে। সংবাদপত্র মুক্তচিন্তার প্রসার ঘটাতে পারে, সে সম্বন্ধে সোচ্চার হবে।

দুঃখপ্রকাশ করে তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় একসময় প্রাচ্যের অক্সফোর্ড বলে পরিচিত ছিল, সেই বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বের এক হাজারটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেও স্থান করে নিতে পারেনি।  

এদেশের মানুষের সত্যিকার অর্থে উন্নয়ন করতে হলে জ্ঞান, বিজ্ঞান এবং শিক্ষায় দেশকে উন্নত করতে হবে। অস্ত্র দিয়ে, সন্ত্রাস করে দেশকে কোনো দিন উন্নতির পথে নিয়ে যাওয়া যায় না। মেগা প্রজেক্টের নামে দুর্নীতি করে দেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাওয়া যায় না।

এ সময় বিএনপির ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৫ ঘন্টা, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২২
এমএমআই/এমকে/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।