ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

সরকার গণতন্ত্রকে দাফন করেছে: তাসমিয়া প্রধান

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৭, ২০২৩
সরকার গণতন্ত্রকে দাফন করেছে: তাসমিয়া প্রধান

ঢাকা: এই সরকার গত ১৫ বছরে গণতন্ত্রকে কবরে দাফন করেছে মন্তব্য বলে মনব্য করেছেন ১২ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক ও জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান। তিনি বলেন, এই সরকার আবারও ক্ষমতায় থাকলে গণতন্ত্রকে লাইফ সাপোর্ট দিয়েও বাঁচানো যাবে না।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) আসাদগেট জিইউপি মিলনায়তনে জাগপা ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রলীগের নৈরাজ্য বন্ধ ও ছাত্র রাজনীতির সুষ্ঠু পরিবেশের দাবিতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান।

তিনি বলেন, এই সরকার গত ১৫ বছরে গণতন্ত্রকে কবরে দাফন করেছে। জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে নিশিরাতের ভোটে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে। রাষ্ট্রের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে দলীয় ও আমলাতন্ত্র বসিয়ে লুটপাট, দুর্নীতি ও অর্থপাচারের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। এমনকি দেশকে অর্থনৈতিকভাবে দেউলিয়া করে তলাবিহীন ঝুঁড়ি উপহার দিয়েছে। তাই দেশ ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে সবাইকে ১০ দফা আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

তাসমিয়া প্রধান আরও বলেন, এই সরকার দেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশ মুছে দিয়ে আমলাতন্ত্র, তাবেদারি এবং কর্তৃত্ববাদের রাজত্ব কায়েম করছে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চিরস্থায়ী করতে এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে রাজনৈতিক নেতা ও পরিবারের সদস্যদের টার্গেট করে মিথ্যা মামলা দেওয়া শুরু করেছে।

ছাত্র জনতার প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতা এবং  স্বৈরাচার থেকে গণতন্ত্র মুক্ত করার আন্দোলনে ছাত্র জনতার অবদান ইতিহাসের সোনালি নামফলক। আপনাদের মনে রাখা ভালো ছাত্র রাজনীতির সোনালি ফসল অবিভক্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জাগপার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মরহুম শফিউল আলম প্রধান ক্ষমতার কাছে কোনোদিন আপস করেননি। তৎকালীন ছাত্রনেতা শফিউল আলম প্রধান দুর্নীতিবাজ ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে প্রথম যুদ্ধ ঘোষণা করেন। সুতরাং আপনাদের মনে রাখতে হবে জাগপা ছাত্রলীগ একটি নাম নয়, একটি সংগ্রামী ইতিহাস। তাই আবারও দেশ ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আগামী দিনেও এই জালিম আওয়ামী সরকারের বিরুদ্ধে সকল ছাত্র জনতাকে রাজপথে নেমে আসতে হবে।

জাগপা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুর রহমান ফারুকীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র সরকারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জাগপার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবু মোজাফফর মো. আনাছ, আসাদুর রহমান খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ শফিকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ও রাজনৈতিক মুখপাত্র রাশেদ প্রধান, যুব জাগপার সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবলু, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জি. মো. সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশিক মোল্লা, যুবনেতা মো. রাসেল, আল আমিন, ছাত্রনেতা এনায়েত কবির, মাহবুব হোসেন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৭, ২০২৩
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad