ঢাকা, বুধবার, ৭ ফাল্গুন ১৪৩০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থাকে অপব্যবহার করেছে বিএনপি

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৫ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩
তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থাকে অপব্যবহার করেছে বিএনপি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি): স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার বিষয়টি মহামান্য আদালত কতৃক নিষ্পত্তি হয়ে গেছে। এ ব্যবস্থাপনাকে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পরে ২০০১ সালে অপব্যবহার করেছে।

তিনি বলেন, যেকারণে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মাধ্যমে অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় এসে দেশের অনেক ক্ষতি করেছে। আমরা বুঝতে পেরেছি কোনোভাবে আবার যদি এ তত্ত্বাবধায়ক সরকার চালু হয়, তাহলে এ সুযোগে অনির্বাচিত সরকার আবার ক্ষমতায় এসে পাকিস্তানের মতো করার সুযোগ রয়ে যাবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা এনে কুমির ঢোকার কোনো ব্যবস্থা করা যাবে না। আমাদের নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সক্ষমতা আছে নির্বাচন আয়োজনের। তাদের নেতৃত্বে যথাসময়ে নির্বাচন হবে।

সোমবার (২০ মার্চ) রাজধানীর শ্যামপুর ইকো পার্কে ‘নদীর প্রাণ আছে, তাকে বাঁচতে দাও’ শিরোনামে ফটো সাংবাদিক কাকলী প্রধানের ১০০ নদীর উন্মুক্ত আলোকচিত্র প্রদর্শনী শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে প্রদর্শনীতে কাকলী প্রধান টেকনাফ ও খুলনাতে নদী রক্ষায় জনসচেতনামূলক ১০০ চিত্র প্রদর্শনী করেন।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, বিএনপি রাজনৈতিক দল, নির্বাচন করাটা তাদের দায়িত্ব। একটা রাজনৈতিক দল যদি নির্বাচন নাই করে তাহলে তাদের রাজনীতি করার যৌক্তিকতা নেই। নির্বাচনে না এলে ওই রাজনৈতিক দলই দায়ী থাকবে। অভিযুক্ত হবে তারা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে। তখন তো বিএনপির জন্মও হয়নি। বাংলাদেশ তো স্বাধীনতা অর্জন করেছে। সব দলের প্রতিই সরকারের আহ্বান থাকবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য।

তিনি আরও বলেন, বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে বসে এমন দূষণের অভিজ্ঞতা অর্জন করলাম, এ দূষণের নিষ্পত্তি হওয়া উচিত। পৃথিবীজুড়ে নদীর তীরে ইন্ডাস্ট্রি আছে। নদী দূষণ না করে তারা নদীকে সংরক্ষণ করে প্লান্ট অপারেট করছে।

যেসব দেশে নৌপথ তেমন যৌক্তিকভাবে নেই সেসব দেশ সুযোগ থাকা সত্ত্বেও অর্থনৈতিকভাবে ভালো করতে পারে না। উজবেকিস্তানের উদাহরণ টেনে মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, উজবেকিস্তান একটা পোটেনশিয়াল কান্ট্রি কিন্তু নৌ ব্যবস্থা না থাকায় তারা ভালো করতে পারছে না। আমাদের এ সুযোগটা আছে, এটা নষ্ট করা উচিত হবে না।

চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থপতি ও নগরবিদ ইকবাল হাবিব।

এছাড়া অনুষ্ঠানে স্থানীয় বাসিন্দারাও উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।