ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

গণহত্যা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি না পাওয়ায় শেখ পরশের বিস্ময়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
গণহত্যা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি না পাওয়ায় শেখ পরশের বিস্ময় ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ২৫ মার্চের গণহত্যা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি না পাওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ।

শনিবার (২৫ মার্চ) জাতীয় গণহত্যা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে 'কালরাত্রি স্মরণ' শীর্ষক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ বিস্ময় প্রকাশ করেন।

এ সময় তিনি অবিলম্বে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ২৫ মার্চের গণহত্যার স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি করেছেন।

তিনি বলেছেন, কেন এখনও ২৫ মার্চ গণহত্যা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায় না? কেন এখনও ২৫ মার্চের হত্যাকাণ্ডের আন্তর্জাতিক গণহত্যার স্বীকৃতির জন্য অপেক্ষা করতে হয়?

যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ২৫ মার্চ, সভ্যতার ইতিহাসের ভয়ঙ্কর একটা রাত। অস্ট্রেলিয়ার ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ পত্রিকা অনুযায়ী শুধুমাত্র ২৫ মার্চ রাতেই বাংলাদেশে প্রায় একলাখ ঘুমন্ত নিরীহ বাঙালিকে বিনা বিচারে হত্যা করেছিল পাকিস্তান হানাদার বাহিনী। যা গণহত্যার ইতিহাসে এক জঘন্যতম ভয়াবহ ঘটনা।  

বাংলাদেশের গণহত্যায় রাজাকার-আলবদর জড়িত মন্তব্য করে তিনি বলেন, এসব হত্যাকাণ্ডের সমর্থন ও সহযোগিতা করেছিল আমাদের দেশেরই রাজাকারদের দল। নিজের পরিবার, প্রতিবেশী অথবা নিজ দেশের নাগরিকের ওপর পরিকল্পিতভাবে এ নৃশংস হত্যাযজ্ঞ সহযোগিতা করে মানুষ হিসাবে ওরা সমগ্র মানুষ জাতিকে কলঙ্কিত করেছে, ছোট করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সৌভাগ্য আমাদের দেশে জন্মেছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তার অপ্রতিরোধ্য প্রতিবাদ ও সাহসী সংগ্রামের ফলে আমরা আমাদের এদেশের মানুষকে ওই সব হায়নাদের গ্রাস থেকে রক্ষা করতে পেরেছি। ২৫ মার্চ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী স্বাধীনতাকামী বাঙালির ওপর হত্যাযজ্ঞ শুরু করলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা করেন।  

যুবলীগের এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু। আরও বক্তব্য দেন অধ্যাপক মুনতাসির মামুন ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক রকিবুল হাসান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
এনবি/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।