ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

রাজনীতি

নির্বাচন হলে শেখ হাসিনাই বিজয়ী হবেন

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
নির্বাচন হলে শেখ হাসিনাই বিজয়ী হবেন বক্তব্য রাখছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: দেশে এখন নির্বাচন হলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই বিজয়ী হবেন বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।  

রোববার (১৭ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ ছেলে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘স্বপ্ন ও সম্ভাবনা স্ফুলিঙ্গ-শেখ রাসেল’ শীর্ষক আলোচনা সভা এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেধা বৃত্তি, শিক্ষা উপকরণ ও দরিদ্র তহবিলে বিশেষ অনুদান বিতরণ কর্মসূচিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ কর্মসূচির আয়োজন করে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি৷ 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের বলেন,  বাংলাদেশের উন্নতিকে বিরোধী পক্ষ সহ্য করতে পারছে না। পৃথিবীর বুকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ স্বীকৃতি পাচ্ছে সে স্বীকৃতি বিএনপি মেনে নিতে পারছে না। দেশে এখনো নির্বাচন হলে শেখ হাসিনাই বিজয়ী হবেন।  

ছাত্রলীগকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের বাতাসে এখন অনেক ষড়যন্ত্র। এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও অনেক কুচক্রী মহল তৎপর। তাদের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থানে থাকতে হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে। একাত্তরের পরাজিত শক্তিই পচাত্তরের হত্যাকাণ্ড করেছিল। নারী ও শিশুদের হত্যা করেছিল। এরা বিষধর সাপের মতো, সুযোগ পেলেই ছোবল মারবে।  

সম্প্রতি সাম্প্রদায়িক হামলার বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাম্প্রদায়িক শক্তি কিন্তু তৎপর। তারা বুঝে ফেলেছে যে শেখ হাসিনা সরকারে ভোটে হারানো যাবে না, এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে জনগণ সাড়া দেবে না। এবার আরো সতর্ক হওয়া উচিত ছিল কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করার পরও তারা দুঃসাহস করেছে। দু-একটা জায়গায় সহিংসতার যে চেষ্টা করেছে সেটিতে তারা ব্যর্থ হয়েছে। এখন আমরা সতর্ক। আর কোথাও এই ধরনের অপশক্তিকে মাথা তুলতে দেওয়া হবে না। যারা সাম্প্রদায়িকতা বিনষ্টের অপকর্মে লিপ্ত তারা কেউ রেহাই পায়নি।  

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, আজকে যারা বারবার দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চাচ্ছে এসব চক্রান্তকারীদের বিষয়ে সচেতন হতে হবে, তাদের মোকাবিলা করতে হবে। আমাদের আরও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমাদের সবাইকে এক হয়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। বাংলাদেশ একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ, এই সম্প্রীতিকে যারা নষ্ট করতে চায় তাদের আমরা আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করবো। আমাদের চেতনাকে শানিত করতে হবে।  

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল হালিম।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
এসকেবি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa