ঢাকা, শনিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

‘সহিংসতার জন্য মানুষ ভোটকেন্দ্রে যেতে চায় না’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২১
‘সহিংসতার জন্য মানুষ ভোটকেন্দ্রে যেতে চায় না’

ঢাকা: জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেছেন, চলমান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন সঠিকভাবে হচ্ছে না। নির্বাচনের নামে ভোটকেন্দ্র দখল হচ্ছে।

ভোটের নামে সহিংসতা হচ্ছে, খুনোখুনি হচ্ছে। জোর করে ভোটের বাক্স ছিনতাই করছে। ক্ষমতাসীনরা নির্বাচনে প্রতিপক্ষকে দাঁড়াতেই দিচ্ছে না। সহিংসতার জন্য মানুষ ভোট কেন্দ্রে যেতে চায় না।  

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে এফডিসি মিলনায়তনে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ‘মুক্ত বাজার অর্থনীতিতে বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের ভূমিকা গৌণ’ শীর্ষক ছায়া সংসদে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।  

জি এম কাদের বলেন, দেশের মানুষ ভোটের ওপর থেকে আস্থা হারিয়ে ফেলছে। জাতীয় নির্বাচনের আগেই ভোটের ব্যবস্থা ঠিক করতে হবে। নির্বাচন হচ্ছে গণতন্ত্র চর্চার প্রবেশদ্বার। সঠিকভাবে নির্বাচন হলেই গণতন্ত্র চর্চা সম্ভব হবে। নির্বাচন সঠিকভাবে হলেই সুশাসন নিশ্চিত হবে। গণতন্ত্র চর্চা হলেই সব ক্ষেত্রে জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে।

তিনি বলেন, গণপরিবহনে হাফ ভাড়ার দাবিতে ছাত্ররা সড়কে নেমে আন্দোলন করছে। ছাত্রদের জন্য হাফ ভাড়া আগেও ছিল। ছাত্রদের হাফ ভাড়ার দাবি যৌক্তিক, ছাত্রদের দাবি মেনে নেওয়া উচিত।  

জি এম কাদের বলেন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা যেন দেশকে জিম্মি করে ফেলেছে। সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করছে শ্রমিকরা। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে সরকারের যেন কিছুই করার নেই।

এ সময় তিনি বলেন, টিসিবির মাধ্যমে স্বল্পমূল্যে খাদ্য পণ্য বিতরণ স্থায়ী সমাধান নয়। আবার কোনো বিষয়ে দীর্ঘদিন ভর্তুকি দেওয়াও সঠিক নয়।  

ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিতর্ক অনুষ্ঠানে ছায়া সংসদে সরকারি দল হয়ে বিতর্কে অংশ নিয়েছে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি এবং বিরোধীদল হিসেবে অংশ নিয়েছে ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২১
এসএমএকে/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।