ঢাকা, শনিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১২ রজব ১৪৪৪

রাজনীতি

নয়াপল্টনে সমাবেশ করলে কঠোর ব্যবস্থা: তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০২২
নয়াপল্টনে সমাবেশ করলে কঠোর ব্যবস্থা: তথ্যমন্ত্রী তথ্যমন্ত্রী ফাইল ছবি

ঢাকা: আগামী ১০ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বদলে নয়া পল্টনে বিএনপির সমাবেশ করতে চাওয়াকে অসৎ উদ্দেশ্য বলে উল্লেখ করেছেন তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, সৎ উদ্দেশ্যে সরকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি দিতে চেয়েছিল।

কিন্তু বিএনপি অসৎ উদ্দেশ্যে নয়া পল্টনে সভা করতে চায়। তারা যদি এ চেষ্টা করে সরকার কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।

রোববার (২৭ নভেম্বর) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এক সেমিনারে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল বলেছেন তারা নয়াপল্টনেই সভা করতে চান। নয়া পল্টনে সভা করার উদ্দেশ্য হলো গণ্ডগোল করা। আবার পুলিশের পক্ষ থেকেও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সভা করতে অনুমতি দেওয়ার কথা।

জনজীবনে বিঘ্ন ঘটলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ব্যস্ততম সড়কে সমাবেশ করে বিএনপি জনজীবনে বিঘ্ন সৃষ্টি করলে সরকার ব্যবস্থা নিবে। কারণ সরকার জনজীবন বিঘ্ন করার, গণ্ডোগোল করার সুযোগ দিতে পারে না।  সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।

তথ্যমন্ত্রী এসময় বলেন, গতকাল কুমিল্লায় বিএনপি সমাবেশ করেছে, বড় পিকনিক করেছে। পিকনিকের আগের দিন অনেক বড় আয়োজন ছিল। অনেক মানুষ পিকনিক করে সমাবেশের আগেই চলে গেছে।

ঢাকা শহরের অগ্নি-সন্ত্রাসীরা লুকিয়ে আছে উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির বড় নেতারা এসব অগ্নি-সন্ত্রাসের অর্থদাতা ও মদদদাতা।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০২২
এনবি/এমএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa