ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

তারার ফুল

একই তারকা, দুই সুপারহিরো

বৃষ্টি শেখ, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৬
একই তারকা, দুই সুপারহিরো

হলিউডে প্রতি বছরই তুরুপের তাস হয়ে থাকেন সুপারহিরোরা। এবারও ব্যতিক্রম হচ্ছে না।

এখন বক্স অফিস শাসন করছে ‘ডেডপুল’। এ চরিত্রে রায়ান রিনোল্ডসের মনমাতানো রসিক ও তীক্ষ্ম অভিনয় দর্শকদের মুগ্ধ করছে। মজার বিষয় হলো, এর আগে আরও একটি সুপারহিরো চরিত্রে তাকে দেখা গেছে। শুধু তিনি নন, হলিউডের বেশ কয়েকজন তারকা দুটি সুপারহিরো সেজে রূপালি পর্দায় এসেছেন। তাদের কথা নিয়েই এ আয়োজন।

বেন অ্যাফ্লেক
২০০৩ সালে মার্ভেল কমিকসের ‘ডেয়ারডেভিল’-এ অন্ধ সুপারহিরোর ভূমিকায় অভিনয় করেন বেন অ্যাফ্লেক। কিন্তু মার্ক স্টিভেন জনসন পরিচালিত ছবিটি বক্স অফিসে আহামরি সাফল্য পায়নি। এবার ডিসি কমিকসের সুপারহিরো ব্যাটম্যান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ৪৩ বছর বয়সী এই অভিনেতা। জ্যাক স্নাইডার পরিচালিত ‘ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অব জাস্টিস’ ছবিতে প্রথমবারের মতো বাদুড়-মানবের ভূমিকায় দেখা যাবে মার্কিন এই অভিনেতাকে। এটি মুক্তি পাবে আগামী ২৫ মার্চ।  

হ্যালি বেরি
মার্ভেল কমিকস অবলম্বনে ‘এক্স-মেন’ সিরিজের ছবিগুলোতে মিউট্যান্ট সুপারহিরো স্টর্ম চরিত্রে অভিনয় করেন মার্কিন অভিনেত্রী হ্যালি বেরি। শুরুটা হয়েছিলো ২০০০ সালে, এরপর একে একে ‘এক্সটু: এক্স-মেন ইউনাইটেড’ (২০০৩), ‘এক্স-মেন: দ্য লাস্ট স্ট্যান্ড’ (২০০৬), এবং ‘এক্স-মেন: ডেজ অব ফিউচার পাস্ট’ (২০১৪) ছবিতে দেখা গেছে তাকে। এর মাঝেই ডিসি কমিকসের ‘ক্যাটওম্যান’ (২০০৪) হয়ে বাজে অভিনেত্রীর পুরস্কার রেজি অ্যাওয়ার্ড হজম করতে হয়েছে তাকে।

রায়ান রিনোল্ডস
মার্ভেল কমিকসের ‘এক্স-মেন অরিজিন্স: উলভারিন’ (২০০৯) ছবিতে ডেডপুল চরিত্রে অভিনয় করেন রায়ান রিনোল্ডস। সাত বছর পর সেই সুপারহিরোকে নিয়ে তৈরি হলো। দশ বছর পর চরিত্রটি নিয়ে পূর্ণাঙ্গ ছবি তৈরি হলেও রিনোল্ডসকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। ‘ডেডপুল’ ছাড়া ডিসি কমিকসের সুপারহিরো ‘গ্রিন ল্যান্টার্ন’ (২০১১) ছবিতে নাম ভূমিকায় কাজ করে মানাতে না পারায় সমালোচক ও কমিক বুক ভক্তদের তিরস্কার সহ্য করেছেন প্রচুর।  

ক্রিস ইভান্স
২০০৫ সালে ‘ফ্যান্টাস্টিক ফোর’ ছবিতে সুপারহিরো হিউম্যান টর্চ চরিত্রে অভিনয় করেন ক্রিস ইভান্স। এটিও মার্ভেল কমিকসের প্রযোজনা। ২০০৭ সালে এর দ্বিতীয় কিস্তি ‘ফ্যান্টাস্টিক ফোর: রাইজ অব দ্য সিলভার সার্ফার’ ছবিতে একই চরিত্রে অভিনয় করেন মার্কিন এই অভিনেতা। তবে তার ক্যারিয়ারকে নতুন মাত্রা এনে দিয়েছে একই কমিকসের সুপারহিরো ক্যাপ্টেন আমেরিকা। ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার’ (২০১১) দিয়ে শুরু, এরপর এ চরিত্রে আরও চারটি ছবিতে দেখা গেছে মার্কিন এই তারকাকে। এ বছর মুক্তি পাবে আরেকটি।

ব্র্যান্ডন রুদ
২০০৬ সালে ব্রায়ান সিঙ্গারের ‘সুপারম্যান রিটার্নস’ ছবিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করে দুনিয়াজোড়া খ্যাতি পান ব্র্যান্ডন রুদ। এরপর তিনি ফেরেন ডিসি কমিকস দুনিয়ায়। টেলিভিশন সিরিজ ‘অ্যারো’র তৃতীয় মৌসুমে সুপারহিরো দ্য অ্যাটম চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এতে একই সঙ্গে একজন বিজ্ঞানী ও একজন ব্যবসায়ীর চরিত্রে দেখা গেছে ৩৬ বছর বয়সী এই মার্কিন তারকাকে। তিনি এমন একটি পোশাক তৈরি করেন যা দিয়ে যে কোনো জিনিস ক্ষুদ্র ও বিশাল করে ফেলা যায়। সামনে ‘লিজেন্ডস অব টুমোরো’ টিভি সিরিজে দ্য অ্যাটম চরিত্রে আবার দেখা যাবে তাকে।

অ্যারন টেলর-জনসন
‘কিক-অ্যাস’ সিরিজে নাম ভূমিকায় অভিনয় করে ভক্তদের মন জয় করেছেন ব্রিটিশ তারকা অ্যারন টেলর-জনসন। এটি তৈরি হয়েছে গ্রাফিক উপন্যাস অবলম্বনে। এতে কমিক বুক ভক্তের চরিত্রে দেখা গেছে তাকে, যে কোনো প্রশিক্ষণ কিংবা পরাশক্তি ছাড়াই বাস্তব জীবনে সুপারহিরো হয়ে উঠতে চায়। গত বছর ‘অ্যাভেঞ্জারস: এজ অব আলট্রন’ ছবিতে ক্ষিপ্রগতিসম্পন্ন কুইকসিলভারের ভূমিকায় অভিনয় করেন তিনি। যদিও তার আগেই ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য উইন্টার সোলজার’ (২০১৪) ছবির পোস্ট-ক্রেডিট দৃশ্যে কুইকসিলভার হিসেবে প্রথমবার দেখা দেন অ্যারন।

বাংলাদেশ সময়: ০৫১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৬
বিএসকে/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তারার ফুল এর সর্বশেষ