ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

তারার ফুল

তারকা মা ও মায়ের তারকা সন্তানের গল্প

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩২ ঘণ্টা, মে ৮, ২০১৬
তারকা মা ও মায়ের তারকা সন্তানের গল্প

পৃথিবীর সবচেয়ে মধুরতম শব্দের একটি হলো ‘মা’। মাকে নিয়ে আমাদের আবেগের শেষ নেই।

 সন্তানকে দুধে-ভাতে রাখার জন্য জীবনের সর্বস্ব বিলিয়ে দিতে একটুও দ্বিধা করেন না মা।

মায়ের স্নেহছায়ায় বেড়ে ওঠার সুখ সব সন্তানের কাছেই জীবনের সবচেয়ে মূল্যবান স্মৃতি। রোববার (৮ মে) বিশ্ব মা দিবস। এ উপলক্ষে তারকা মা ও মায়ের তারকা সন্তানদের নিয়ে এই আয়োজন।


মা তুমি আমার ‘সুপার মম’ : বাঁধন

আমি, আমার মা আর আমার মেয়ে। এই তিনের সমন্বয়ে আমার পৃথিবী। মা দিবস নিয়ে আমার অনেক পরিকল্পনা থাকে। আমি মা হওয়ার পর এই দিনটি আরও বেশি স্পেশাল হয়েছে আমার কাছে। এ বছর মা দিবসে মায়ের জন্য কিছু উপহার কিনেছি, সঙ্গে ফুল আর কেক।  আমাকে কিছু না জানালেও বুঝতে পারছি আমার জন্য সাহারা (মেয়ে) বিশেষ কিছুর আয়োজন করেছে। আজ (রোববার) বাইরে কোনো কাজ রাখিনি। সারাদিন কাটাবো মা আর মেয়েকে নিয়ে।  রাতে কোথাও খেতে যাবো সবাই মিলে।  

আমি মনে করি, আমার সন্তান আমার দেখা সবচেয়ে ভালো সন্তান। কারণ সে এখনই বোঝে, আমি ওকে ভালো রাখার জন্যই চেষ্টা করি।  ব্যস্ততার মধ্যেও ওকে সময় দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার মেয়ে আমাকে মাঝে মধ্যে বলে ‘মা, তুমি আমার সুপার মম’। আমার মেয়ের এই কথাটি আমাকে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করে।  

আমার মেয়ে বড় হয়ে কি হবে বা কি করবে তা এখনই বলতে পারছি না।  ওকে ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলাই আমার মূল চাওয়া। সাহারার সঙ্গে আমার মনের মিল অনেক। প্রায়ই দেখা যায়, আমি যা বলতে চাচ্ছি তা আগেই বুঝে যাচ্ছে ও। এই বিষয়টি আমাকে মাঝে মধ্যে অবাক করে দেয়।

আমার অনুপ্রেরণা আমার মা : মম
মা দিবস নিয়ে আমার তেমন কোনো পরিকল্পনা থাকে না। তবে এবারের মা দিবস একটু ভিন্ন। আজ (রোববার) আমার মা ‘রত্নগর্ভা’ পুরস্কার পাচ্ছেন। তাই মাকে সঙ্গে নিয়ে আমিও সেই পুরস্কার নিতে যাবো। যে মানুষ আমাকে প্রতিনিয়ত অনুপ্রেরণা জোগায়, আমাকে সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করেন, তিনি আমার মা। তাই মাকে ভালোবাসা কিংবা উপহার দেওয়ার জন্য কোনো বিশেষ দিনের দরকার হয় না।


মা-মেয়ের জন্য উপহার কিনেছি : সালমা

আগে ওভাবে মা দিবস পালন করা হতো না।  মা হওয়ার পর থেকে দিবসটি আমার কাছে এখন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এবারের মা দিবসে আমার মা ও মেয়ে স্নেহার জন্য উপহার কিনেছি। আমার মেয়ের অবশ্য দিবসটি নিয়ে এখনও তেমন কোনো ধারণা জন্মায়নি। আমাকে প্রায়ই বাইরে যেতে হয় কাজে, কিন্তু মেয়ের যেন কোনো অযত্ন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখি। আমার কাছে আমার সন্তান যেমন, ঠিক তেমনি আমার মা। তারাই আমার আদর্শ ও অনুপ্রেরণা। আমার প্রতিটি কাজে আমার মা আমাকে সাহায্য করেন, অনুপ্রেরণা জোগান। তেমনি আমার মেয়েও আমার অনেক প্রশংসা করে। আমার মেয়ে আমাকে মাঝে মধ্যে বলে, ‘আম্মু তুমি অনেক সুন্দর। ’ আমার রান্না খেতে অনেক পছন্দ করে ও।  


আমিও মায়ের মতো নির্ভীক : শবনম ফারিয়া 

মাকে ছাড়া আমি নিজেকে কল্পনা করতে পারি না। মা দিবসে প্রতি বছরই মাকে কিছু না কিছু উপহার দেওয়া হয়। আমার মা ঘরের কাজ করতে ভালোবাসেন। তাই এবার আম্মুর ঘরের কাজে লাগে এমন কিছু উপহার দিয়েছি। রাতে মা-বাবা আর আমি বাইরে খেতে যাবো। আমার মায়ের রান্না খেতে আমি খুব পছন্দ করি। ছুটির দিনে বাসায় থাকলে মায়ের সঙ্গে সময় কাটানো হয়। পড়াশোনা করার সময় বিকেলে চা খেতে খেতে মায়ের সঙ্গে কাটানো সময়গুলো খুব মনে পড়ে।  

একমাত্র আমাদের যত্নের জন্য আমার মা চাকরি ছাড়তেও পিছপা হননি। যা হয়তো আমরা সহজেই পারতাম না। মা আমাদের জন্য যে স্বার্থ ত্যাগ করেছেন তা হয়তো আমরা কখনও পারবো না।  মায়ের এই স্বার্থত্যাগ আমাকে অনেক অনুপ্রাণিত করে। আমার সামনে কখনও আমার মা প্রশংসা করেন না। তিনি সবসময় আমার ভুলত্রুটি ধরিয়ে দেন। আমার বড় বিচারক হলেন মা। মায়ের সঙ্গে আমার সবচেয়ে বড় মিল হলো আমরা দু’জনই সরল ও নির্ভীক।  

বাংলাদেশ সময় : ১৭১৫ ঘণ্টা, মে ০৮, ২০১৬
টিএস/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa