ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

তারার ফুল

মা-বাবার খোঁজে ভুলোমনা মাছ

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪৩ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০১৬
মা-বাবার খোঁজে ভুলোমনা মাছ

রক্ত-মাংসের তারকা নয়, মামুলি একটা মাছ। তা-ও ফেসবুকে তার পেজে লাইকের সংখ্যা আড়াই কোটিরও বেশি! বলছি ডোরির কথা।

হলিউডের নির্মাণ প্রতিষ্ঠান ওয়াল্ট ডিজনি পিকচার্স কিংবা পিক্সার অ্যানিমেশন স্টুডিওসের ছবির আর কোনো চরিত্রের এতো ভক্ত নেই।
 
২০০৩ সালের ৩০ মে ‘ফাইন্ডিং নেমো’র মাধ্যমে এই নীল রঙা মাছের রূপালি পর্দায় আবির্ভাব। সব বয়সী দর্শকের মন জয় করার পাশাপাশি অস্কারে সেরা অ্যানিমেটেড ছবির পুরস্কার জেতে এটি। ৯ কোটি ৪০ লাখ ডলার বাজেটের ছবিটি বিশ্বব্যাপী ৯৩ কোটি ৬৭ লাখ মার্কিন ডলারের ব্যবসা করে সাড়া জাগায়।
 
ফলে আশা করা হয়েছিলো, সহসাই এর নতুন কিস্তি আসবে। কিন্তু তা হয়নি। ছবিটির নতুন পর্ব তৈরিতে নির্মাতাদের উদ্বুদ্ধ করার জন্য প্রচারণাও হয়েছে ঢের। এতে অগুনতি ভক্তের পাশাপাশি অংশ নিয়েছেন ওই ছবিতে ডোরির ভূমিকায় কণ্ঠ দেওয়া মার্কিন টক শো উপস্থাপিকা এলেন ডিজেনারেস। তিনি তো ভেবেছিলেন, এর নতুন কিস্তি হয়তো কখনও হবে না!

অপেক্ষা করতে করতে কেটে গেছে ১৩ বছর। অবশেষে আসছে ‘ফাইন্ডিং নেমো’র দ্বিতীয় পর্ব ‘ফাইন্ডিং ডোরি’। নিজের টক শোতে ছবিটি তৈরি হওয়ার প্রথম ঘোষণা দেন এলেন ডিজেনারেস। তার অনুষ্ঠানেই এর প্রথম ট্রেলার মুক্তি পায়। তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু সংগীতশিল্পী সিয়া গেয়ে দিয়েছেন ছবিটির থিম সং ‘আনফরগেটেবল’।
 
‘ফাইন্ডিং ডোরি’ তৈরি হওয়ায় যারপরনাই খুশি এলেন ডিজেনারেস। ছবিটির হলিউড প্রিমিয়ারে তার হাস্যোজ্জ্বল উপস্থিতি সেটাই বোঝালো। এবারও তিনিই কণ্ঠ দিয়েছেন ভুলোমনা ও আড্ডাবাজ নীল রঙা মাছ ডোরি চরিত্রে। এলেন বলেছেন, ‘ছবিটা শেষ পর্যন্ত হয়েছে বলে আমি উচ্ছ্বসিত। ভেবেছিলাম এটা বোধহয় কখনও হবে না! মন থেকে বলছি, সিক্যুয়েলটি নিয়ে এতো বেশি কথা বলেছি যে মনে হতো আশা ছেড়ে দেই!’
 
এলেন ডিজেনারেসের মতো ডোরি ভক্তরাও নিশ্চয়ই খুশি। মজার বিষয় হলো, ১৩ বছরকে গল্পে কমিয়ে আনা হয়েছে মাত্র ছয় মাসে! অর্থাৎ প্রথম ছবি শেষ হওয়ার ছয় মাস পরের ঘটনা দেখানো হয়েছে এতে।
 
এবারও পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন অ্যান্ড্রু স্ট্যানটন। তবে এবার তার সঙ্গে ছিলেন আরেক পরিচালক অ্যাঙ্গাস ম্যাকলেন। অ্যান্ড্রুর সঙ্গে যৌথভাবে চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন ভিক্টোরিয়া স্ট্রাউস ও বব পিটারসন। এবার তারা গল্প ভেবেছেন ক্যালিফোর্নিয়া উপকূলকে মাথায় রেখে।
 
বন্ধুসুলভ কিন্তু মনভোলা নীল মাছটির সঙ্গে তার বন্ধুদের পুনর্মিলন দেখা যাবে এবারের ছবিতে। সাধাসিধে মাছের স্মৃতিশক্তি লোপ পায় ১০ সেকেন্ড পরপর। তবে তার এটুকু মনে আছে- শৈশবে যে কোনো কারণে মা-বাবার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে সে।
 
দুই বন্ধু নেমো ও মারলিনের সহায়তায় মা-বাবাকে খুঁজে বের করার দুঃসাহসিক ও রোমাঞ্চকর অভিযানে নামে ডোরি। একসময় তারা হাজির হয় কাচঘেরা মন্টারি মেরিন লাইফ ইনস্টিটিউটে। এখানে সাগরতলের বিচিত্র সব প্রজাতি সংরক্ষণ করা হয়।
 
ডোরি বুঝে যায়, এই কাচঘেরা জগতেই হয়তো আছে তার মা-বাবা। পরিবারের সঙ্গে তার দেখা হতে পারে যদি সে মা-বাবাকে বন্দিদশা থেকে মুক্ত করতে পারে। এখানে ডোরির গাইড হিসেবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় সাদা বিশালাকার তিমি বেইলি, হাঙ্গর ডেস্টিনি ও অক্টোপাস হ্যাঙ্ক।

 
ডোরি ছাড়াও প্রথম ছবির নেমো, মারলিন, মিস্টার রে, ক্রাশ ও স্কুইয়ার্ট এবারও আছে। আগেরটিতে নেমো চরিত্রে কণ্ঠ দিয়েছিলেন আলেক্সান্ডার গুল্ড। এবার নেমো হিসেবে আছেন হেডেন রোলেন্স। এ ছাড়াও কণ্ঠ দিয়েছেন এড ও’নেইল, টাই বারেল, কেইটলিন ওলসন, আলবার্ট ব্রুকস, ডায়েন কিটন, ইউজিন লেভি, মাইকেল শিন।
 
এটি পিক্সারের তৃতীয় ছবি, যেটাতে নারী চরিত্রই প্রধান। আগের দুটি হলো ‘ব্রেভ’ (২০১২) ও গত বছর মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ইনসাইড আউট’। আরেকটি উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হলো, ‘কারস টু’র (২০১১) পর আবার পিক্সারের কোনো ছবির প্রদর্শনী হবে আইম্যাক্সে।  
 
ত্রিমাত্রিক প্রযুক্তিতে নির্মিত কম্পিউটার অ্যানিমেটেড কমেডি অ্যাডভেঞ্চার ছবিটি
সমালোচকদের ইতিবাচক পর্যালোচনা পেয়েছে। ৩১টি পর্যালোচনার ওপর ভিত্তি করে রোটেন টমেটোস ‘ফাইন্ডিং ডোরি’কে ৯৪ শতাংশ রেটিং দিয়েছে। গড় রেটিংয়ের এর অবস্থান দশে সাড়ে সাত। ১২ জন সমালোচকের মন্তব্য অনুযায়ী মেটাক্রিটিকে ১০০তে ৭৫ স্কোর রয়েছে এর। এবারের পর্বও যে সাড়া জাগাবে তা বোঝা যাচ্ছে ভালোই।
 
গত বছরের ২৫ নভেম্বর ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু পিক্সারের আরেক ছবি ‘দ্য গুড ডাইনোসর’ তখন মুক্তি পাওয়ায় পিছিয়ে দেওয়া হয় ‘ফাইন্ডিং ডোর ‘কে। ওয়াল্ট ডিজনি স্টুডিওস মোশন পিকচার্সের পরিবেশনায় আগামী ১৭ জুন মুক্তি পাবে ১ ঘণ্টা ৪৩ মিনিট ব্যাপ্তির ছবিটি। সুতরাং পপকর্ন প্রস্তুত করে ফেলুন। আর দুই দিন বাদেই সাঁতরাবে ডোরি!
 
বাংলাদেশ সময়: ২৩২৩ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০১৬
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তারার ফুল এর সর্বশেষ