ঢাকা, বুধবার, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ জুন ২০২২, ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

পর্যটন

দাবি না মানলে রুমায় ঘুরবে না চান্দের গাড়ির চাকা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ৩, ২০২২
দাবি না মানলে রুমায় ঘুরবে না  চান্দের গাড়ির চাকা

বান্দরবান: বান্দরবানের রুমা উপজেলায় চলাচলরত পর্যটকবাহী সব ধরনের যানবাহন সমিতির মালিক ও চালকরা পরিবহন ধর্মঘট করছেন।  

বুধবার (২ মার্চ) সন্ধ্যায় রুমা বাজার এলাকায় সমিতির সদস্যরা বিক্ষোভ মিছিল করে এক ধর্মঘটের ডাক দেন।

পরে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) সকাল থেকে সমিতির সদস্যরা রুমা বাজারে অবস্থান ধর্মঘট করেন এবং সব ধরনের পর্যটকবাহী যানবাহন বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করেন।
 
রুমা উপজেলা পর্যটকবাহী যানবাহন চালক সমিতির সভাপতি কার্তিক কর্মকার বলেন, রুমা উপজেলায় ৭৫টি পর্যটকবাহী জিপ গাড়ি (চান্দের গাড়ি) রয়েছে, মালিক, চালক ও শ্রমিক মিলে প্রায় দেড়শ’ জন এ পেশায় জড়িত। তাদের রুজি রোজগারের একমাত্র অবলম্বন এসব যানবাহন। বান্দরবান জেলা শহর থেকে পর্যটনবাহী জিপ গাড়ি গুলো রুমা উপজেলার বিভিন্ন পর্যটন স্পটে সরাসরি চলে আসায় আমারা কর্মহীন হয়ে পড়ছি। এতে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে অনেককেই।  

তিনি আরও বলেন, আগে বান্দরবান থেকে রুমা এসে সব গাড়ি থামত এবং আমরা পর্যটকদের বিভিন্ন স্পটে ঘুরিয়ে আনতাম। কিন্তু বর্তমানে বান্দরবান থেকে পর্যটকবাহী গাড়িগুলো রুমা এসে বগালেক, কেওক্রাডংসহ বিভিন্ন পয়েন্টে সরাসরি চলে যাচ্ছে। এতে আমরা স্থানীয় চালকরা বেকার হয়ে পড়েছি। আমরা এখন থেকে আর কোনো গাড়ি বান্দরবান থেকে এসে সরাসরি রুমার ভেতরে ঘুরতে দেব না, আমরা পর্যটকদের আমাদের গাড়িতে ঘুরাব। এ দাবি না মানা পর্যন্ত রুমা উপজেলার সব পর্যটকবাহী গাড়ি চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখব।

এদিকে বান্দরবানের রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুহাম্মদ আমলগীর বলেন, সকাল থেকে রুমা বাজারে পর্যটকবাহী যানবাহন সমিতির মালিক ও চালকরা পরিবহন ধর্মঘট করছেন। তাদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আমরা বসেছি। কীভাবে পর্যটকদের সবাই মিলে সেবা দিয়ে বান্দরবানের বিভিন্ন পর্যটন স্পট ঘুরে দেখাতে পারি, সেটা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, আশা করি সমস্যার দ্রুত সমাধান হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ৩, ২০২২
এসআই


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa