ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাণিজ্যমেলা

বাড়লো ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার সময়

গৌতম ঘোষ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯
বাড়লো ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার সময় ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের ভিড়/ফাইল ফটো

ঢাকা: ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার সময় একদিন বাড়ানোর প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। দু’একদিনের মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে বলেও জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বাংলানিউজকে বলেন, ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) পর্যন্ত বাণিজ্য মেলার সময় বাড়ানোর দাবি রয়েছে। শনিবার ছুটির দিন হওয়ায় একদিন সময় বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিয়ে আয়োজক সংস্থা রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী বৈঠক করে প্রাথমিকভাবে একদিন সময় বাড়ানোর একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দু’একদিনের মধ্যেই প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।  

সূত্র জানায়, এর আগে ২০১৫ সালে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে মেলার মেয়াদ ১০ দিন বাড়ানো হয়েছিল। কিন্তু গতবছর ছিল ভিন্ন চিত্র। ২০১৭ সালে চারদিন মেলার সময় বাড়ানো হয়। ২০১৮ সালে ব্যবসায়ীরা সময় বাড়ানোর দাবি জানালেও সময় বাড়ানো হয়নি।

৯ জানুয়ারি বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে আয়োজিত ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এরপর তিনি মাসব্যাপী আয়োজিত এ মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্য অনুযায়ী, এবছর আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য সাতদিন পিছিয়ে ৯ জানুয়ারি উদ্বোধন করা হয়। মেলা চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। একদিন সময় বাড়ানো হলে মাসব্যাপী এ মেলার পর্দা নামবে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি।  

মেলার গেট ও বিভিন্ন স্টল প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। প্রাপ্তবয়স্কদের প্রবেশের জন্য টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। এবারই প্রথম মেলার টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে।

মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে রয়েছে প্যাভিলিয়ন ১১০টি, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩টি ও রেস্তোরাঁসহ অন্য স্টল ৪১২টি। এবার বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের ৫২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে। দেশগুলো হলো- থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০১৯
জিসিজ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa