ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

শিল্প

‘বর্তমান পরিস্থিতিতে বিশ্ব রফতানি নিয়ে ভাবতে হবে’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৭ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০১৬
‘বর্তমান পরিস্থিতিতে বিশ্ব রফতানি নিয়ে ভাবতে হবে’

ঢাকা: বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে আমাদের রফতানির ব্যাপারে নতুন করে ভাবতে হবে। আমরা কী করে রফতানিকারকদের সুবিধা দিতে পারি সে ব্যাপারে বাস্তব পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

তৈরি পোশাকের জন্য যে চ্যালেঞ্জ আছে তা মোকাবেলা করতে হবে।

রোববার (২৬ জুন) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত দফতরগুলোর বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারত টার্গেট করেছে ২০১৮ সালে তাদের তৈরি পোশাক থেকে ৪০ বিলিয়ন ডলার ‍অর্জন কর‍ার। তারা বাংলাদেশকে অতিক্রম করতে চায়। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম তৈরি পোশাক রফতানিকারক দেশ, এই জায়গাটা ভারত নিতে চায়।

‘সে জন্য তারা প্রায় ছয় হাজার কোটি টাকা নগদ সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অর্থাৎ তৈরি পোশাকখাতে ২৫ শতাশ ক্যাশ ইনটেনসিভ দেবে তারা। যাতে তাদের দেশের রফতানিকারকরা উৎসাহিত হয়। তারও একটা প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে বলে অনেকে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। ’

তৈরি পোশাক খাতের বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের টার্গেট, ২০২১ সালে আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে মোট তৈরি পোশাক রফতানি হবে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

এই লক্ষ্যটি সামনে নিয়ে আমরা এগিয়ে চলেছি। বাজেটে তৈরি পোশাকখাতে ১.৫ শতাংশ সোর্স ট্যাক্স আরোপ করা হয়েছে তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ভেবেছেন, অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। আশা করি এটা সহনীয় পর্যায়ে আসবে। ’

বিশেষ অর্থনৈতিক এলাকায় চীন-জাপানকে বরাদ্দ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, চীন এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বিশ্বে এক নম্বর রেডিমেড পোশাক রফতানি করে। চীন এখন তৈরি পোশাক খাত থেকে আস্তে আস্তে গুটিয়ে নিচ্ছে। আমাদের দেশে রিলোকেট করতে চায়।

চিনি নিয়ে কারসাজি

‘চিনির দাম বাজারে স্থিতিশীল রয়েছে’ জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী  তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘চিনি নিয়ে বোধ হয় কিছু কারসাজি হয়েছে। পত্রপত্রিকা লেখালেখি করে। আবার কোনো কোনো রিপোর্ট সঠিকও না। মিল গেটে চিনি ৪৮ টাকা। সব মিলে ৬০ টাকার বেশি হওয়ার কথা না। আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্য বেড়েছে। ’

লবণ আমদানি হবে

বর্তমানে লবণের সংকট নেই জানালেও মন্ত্রী বলেন, আমরা দেড় লাখ টন লবণ আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষে সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে দফতারর/সংস্থাগুলোর প্রধানরা এতে সই করেন।

মন্ত্রী জানান, ট্যারিফ কমিশন, চা বোর্ড, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, টিসিবি, জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর, যৌথ মূলধন কোম্পানি আমদানি রফতানি বিষয়ক প্রধান নিয়ন্ত্রক দফতর, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পারফরমেন্স ভালো, যে দায়িত্ব তাদের ওপর অর্পিত, তা নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে আসছেন তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৬ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০১৬
এমআইএইচ/এমএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa