ঢাকা, বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

তথ্যপ্রযুক্তি

রবি’র নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে আইএফসি’র অর্থায়ন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১৫
রবি’র নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে আইএফসি’র অর্থায়ন ছবি: বাদল / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেডের নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং নতুন টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো নির্মাণে অর্থ সহায়তা দেবে বিশ্বব্যাংকের সদস্য প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (আইএফসি)।
 
রোববার (২০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে প্রতিষ্ঠান দু’টির মধ্যে এ সম্পর্কিত একটি চুক্তি সই হয়।


 
নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও সুপুন বীরাসিংহে ও আইএফসি’র সিনিয়র কান্ট্রি অফিসার এম. রেহান রশীদ।
 
৯৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের (প্রায় ৭৭২ কোটি টাকা) দীর্ঘমেয়াদি এ ঋণ সুবিধা রবি মোবাইল নেটওয়ার্কের বাইরের এলাকায় বিশেষত গ্রাম এলাকায় সম্প্রসারিত নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আরও বেশি জনগণকে টেলিযোগাযোগ সেবার আওতায় নিয়ে আসতে সাহায্য করবে বলে জানায় দুই প্রতিষ্ঠান।
 
সাত বছরের জন্য এ ঋণ সহায়তার একটি বড় অংশ রবি’র ৩.৫ জি মোবাইল নেটওয়ার্কের বিস্তৃতি এবং সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কাজে লাগানো হবে বলে জানায় অপারেটরটি।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এ চুক্তি বাংলাদেশে গ্রাহকের কাছে রবি’র মানসম্মত সেবা প্রদানে অব্যাহত অগ্রগতিরই মাইলফলক। শক্তিশালী কর্পোরেট সুশাসন বজায় রেখে অব্যাহত গতিতে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে রবি সবসময়ই আপসহীন। স্থানীয় ও বৈদেশিক ঋণ এবং সেই সঙ্গে অংশীদারদের অবদানের মাধ্যমে সবচেয়ে ভালো মূলধনী কাঠামো গড়ে তোলার চেষ্টা করছে রবি।
 
চুক্তি সম্পর্কে রবি’র সিইও সুপুন বীরাসিংহে বলেন, রবি’র প্রতি আইএফসি আস্থা স্থাপন করায় আমরা সত্যিই কৃতজ্ঞ। এটি বাংলাদেশের ভবিষ্যতের উপর বিশ্বব্যাংকের মতো আর্ন্তজাতিক সংস্থার আস্থারই প্রতিফলন। আজিয়াটার লক্ষ্য এশিয়াকে এগিয়ে নিতে শীর্ষস্থানীয় মোবাইল অপারেটর হিসাবে রবি সবসময় তার গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে নেটওয়ার্ক জোরদারে বেশি বিনিয়োগ করে এসেছে।
 
আইএফসি’র সঙ্গে এ চুক্তি আজিয়াটার লক্ষ্য পূরণ, কর্পোরেট সুশাসন ও সামাজিক দায়বদ্ধতার অঙ্গীকার আরও একধাপ এগিয়ে রাখবে বলে মনে করেন রবি’র সিইও।
 
চুক্তি সম্পর্কে আইএফসি’র সিনিয়র কান্ট্রি অফিসার এম. রেহান রশীদ বলেন, দায়িত্বশীল কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানের নীতিমালা সমুন্নত রাখার মাধ্যমে রবি মোবাইল টেলিযোগাযোগ শিল্পে একটি দৃঢ় অবস্থান করে নিয়েছে। আমরা দেখেছি, গ্রাহককেন্দ্রিক কার্যক্রমের মাধ্যমে অর্থনীতির টেকসই প্রবৃদ্ধির জন্য রবি সফলভাবে তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণে কাজ করে যাচ্ছে। আইএফসি মূলত রবির টেকসই ব্যবসার লক্ষ্যে শক্তিশালী কর্পোরেট সুশাসন কাঠামোয় মুগ্ধ। রবি’র সঙ্গে এ অংশীদারিত্বে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।
 
এ অর্থসহায়তা রবিকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে টেলিযোগাযোগ অবকাঠামোর উন্নয়নে সাহায্য করবে এবং ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে আরও একধাপ এগিয়ে নেবে বলে মনে করেন আইএফসি’র এ কর্মকর্তা।
 
অনুষ্ঠানে গুণগত টেলিকম সেবার উপর গুরুত্বারোপ করেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। তিনি বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে এ ঋণ সহায়তা ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে বিটিআরসি’র ভাইস চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আহসান হাবিব খান, বিনিয়োগ বোর্ডের এক্সিকিউটিভ মেম্বার মো. খাইরুল আনাম, মো. আবদুস জাহের, সালমা নাসরীন এবং বিশ্বব্যাংকের অপারেশন্স অফিসার মোহাম্মদ লুৎফুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।
 
রবি’র চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) ইয়াপ ওয়াই ইপ এবং চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড পিপল অফিসার (সিসিপিও) মতিউল ইসলাম নওশাদ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
 
মালয়েশিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ ও জাপানের এনটিটি ডকোমো ইনকরপোরেশনের একটি যৌথ উদ্যোগ রবি আজিয়াটা লিমিটেড।
 
রাজস্বের বিবেচনায় রবি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর, যার গ্রাহক সংখ্যা সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২ কোটি ৮৪ লাখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১৫
এমআইএইচ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa