ঢাকা, বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৮ মহররম ১৪৪৪

তথ্যপ্রযুক্তি

গুটিকয়েক ব্র্যান্ড নিয়ে ল্যাপটপ মেলা কার্যত ফ্লপ!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৬
গুটিকয়েক ব্র্যান্ড নিয়ে ল্যাপটপ মেলা কার্যত ফ্লপ! গুটিকয়েক ব্র্যান্ড নিয়ে ল্যাপটপ মেলা কার্যত ফ্লপ

সপ্তম প্রজন্মের প্রসেসরের ল্যাপটপ এখন বাজারে খুবই কমন। কিন্তু সেই ধরনের ল্যাপটপ নেই ল্যাপটপ মেলায়। একজন ক্রেতা এইচপি ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ কিনতে এসে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন।

ঢাকা: সপ্তম প্রজন্মের প্রসেসরের ল্যাপটপ এখন বাজারে খুবই কমন। কিন্তু সেই ধরনের ল্যাপটপ নেই ল্যাপটপ মেলায়।

একজন ক্রেতা এইচপি ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ কিনতে এসে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন। তিনি মনে করেছিলেন, মেলায় কোর আই সেভেন ক্যাটাগরির ল্যাপটপ পাবেন। কিন্তু হতাশ হতে হলো তাকে।
 
শুধু কয়েকটি ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ সাজিয়ে কোনরকম দায়সারা একটি মেলা হয়েছে। মেলায় ১৮টি স্টল থাকলেও ঘুরেফিরে সবগুলোতে সেই একই ল্যাপটপ সাজিয়ে রাখা। শুধু স্টলের পর স্টল আছে ল্যাপটপ নেই!
 
বৃহস্পতিবার থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের এক কোণায় শুরু হয় তিনদিনব্যাপী ল্যাপটপ মেলা। অথচ শেষদিন শনিবারও (১৭ ডিসেম্বর) তেমন দর্শনার্থী এই ল্যাপটপ মেলামুখী হননি।

শেষদিন দুপুরে ধানমন্ডির কামরুল ইসলাম এসেছিলেন নতুন প্রযুক্তির ল্যাপটপের খোঁজে। মাত্র মিনিট দশেকে তার ল্যাপটপ দর্শন শেষ। বেরিয়ে এসে বললেন, এখানে অনেকগুলো স্টলে যাবার দরকার নেই। এক-দু’টি স্টলে যা আছে বাকিগুলোতেও তাই। নেই ভাল মানের ল্যাপটপ। এর ফাঁকে সস্তা মানের ল্যাপটপ কিনে অনেকে প্রতারিতও হতে পারেন।
 
তার সতর্কবাণী কানে নিয়ে ভেতরে এক চক্করে দেখা গেলো, মোটেও মিথ্যা নয়। কিছু নাম না জানা ল্যাপটপ ব্র্যান্ড এসেছে মেলায়। যাদের নামই এই প্রথম শোনা। এরা কম মূল্যে দিচ্ছে নিম্ন মানের ল্যাপটপ। অল্প যে কয়েকটি পরিচিত ব্র্যান্ড আছে সেগুলোর ল্যাপটপও কম প্রসেসরের। কোর আই সেভেন প্রসেসরের ল্যাপটপ নেই বললেই চলে।
 
এ মেলা থেকেই অদূরে আগারগাঁওয়ে আইডিবি ভবনে গিয়ে ল্যাপটপ কিনলে আরও ভালো মানের ও কম দামে ল্যাপটপ পাওয়া যাবে-কেউ কেউ এমনটাই বলছেন।

আবার অন্যান্যবার যেমন ল্যাপটপ মেলা হলে তরুণ-তরুণীদের ভিড় লেগেই থাকতো, সেখানে এবার কোনো সাড়া পড়তে দেখা গেলো না। বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রের আশেপাশে গিয়েও বোঝার উপায় নেই ভেতরে যে ল্যাপটপ মেলা চলছে।
 
আয়োজকরা এবার তেমন আকর্ষণ গড়ে তুলতে পারেনি ল্যাপটপ মেলা ঘিরে। প্রতি বছরের মতো একটি আয়োজন দরকার-এই যা! এর বাইরে বহু ব্র্যান্ড ও আধুনিক প্রযুক্তির ল্যাপটপ এখন ঢাকার বাজারে মিলছে তার দেখা নেই এ মেলায়।
 
আয়োজকরা মেলায় প্রবেশের জন্য টিকিট কাউন্টার যেখানে রেখেছেন সেখানে কেউ নেই। অর্থাৎ দর্শনার্থী ফাঁকা এক ধরনের মেলা চলছে। যাদের ঘুরেফিরে দর্শনার্থী মনে করা হচ্ছে এদের বেশিরভাগই আবার বিভিন্ন স্টলের সেলসম্যান অথবা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের লোক।

মেলায় সবচেয়ে কম দাম ১৬ হাজার ৪শ টাকায় ল্যাপটপ দিচ্ছে একটি দেশীয় কোম্পানি। কিন্তু আগত ক্রেতাদের অভিযোগ শুধু দাম নয়, এর মানও কম। এতো কম মেমোরি প্রসেসরের ল্যাপটপে কিছুক্ষণ পর পর হ্যাঙ্গ করে বসে থাকবে বলে একজনকে দেখা গেলো মুখ ফিরিয়ে নিতে।

মেলায় প্রবেশমুখে আয়োজকদের একজনকে পাওয়া গেলো। তিনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট মেকার-এর সিনিয়র এক্সিকিউটিভ লজিস্টিক আজমল হোসাইন।

তার কাছে মেলায় সাড়া না পাওয়ার কারণ জানতে চাইলে বললেন, লোকজন এখন না এলেও পরে আসবে।

এতো কম ব্র্যান্ড কেন? এর উত্তর- বাকিগুলোর অথরাইজ সেলস প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে নেই।

মেলা ঘুরে দেখা গেছে, এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনোভো, ওয়ালটন, অ্যাভিরা, আই-লাইফ, ইসেট, রাপ্পো নামের অখ্যাত কয়েকটি ব্র্যান্ড ছাড়া আর কোনো উন্নতমানের ব্র্যান্ড নেই। এগুলোই ঘুরেফিরে অন্য ৩০টির মতো স্টলে সাজিয়ে রাখা। তবে এসব ব্র্যান্ডের ভাল মানের কোনো ল্যাপটপ মেলায় নেই। যা আছে তাও নিম্নমানের এবং কম ক্ষমতাসম্পন্ন।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৬ 
এসএ/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa