ঢাকা, সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ জুন ২০২২, ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

তথ্যপ্রযুক্তি

সফটওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপনে আগ্রহী মার্কিন প্রতিষ্ঠান

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ৬, ২০২২
সফটওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপনে আগ্রহী মার্কিন প্রতিষ্ঠান

ঢাকা: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সঙ্গে আইটি সেবাদানকারী যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ‘এসভিএএম’ এর প্রেসিডেন্ট ও সিইও অনিল কাপুর সাক্ষাৎ করেছেন।

বুধবার (০৬ এপ্রিল) আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ারে প্রতিমন্ত্রীর দপ্তরে এ সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন নর্থ শোর টেকনোলজিস লিমিটেডের পরিচালক মনীশ সেহগাল, এসভিএএম-এর ভাইস-প্রেসিডেন্ট ধনঞ্জয় কুমার, এফএম অ্যাসোসিয়েটসের পরিচালক ব্যারিস্টার এ এইচ এম বেলাল চৌধুরী, মার্কিন দূতাবাস ঢাকার ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের চিফ জন ডানহাম, মার্কিন দূতাবাস ঢাকার অর্থনৈতিক/বাণিজ্যিক বিশেষজ্ঞ শিলা আহমেদ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এ সময় অনিল কাপুর ‘এসভিএএম’ এর বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রীকে বিস্তারিত অবহিত করেন। অনিল কাপুর প্রতিমন্ত্রীকে জানান, এসভিএএম মূলত যুক্তরাষ্ট্রে সফটওয়্যার তৈরিসহ আইটি সহায়তা প্রদানকারী অন্যতম প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠেছে এবং এই কাজের জন্য বাংলাদেশে সফটওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপনে আগ্রহ প্রকাশ করে।

তিনি বলেন, উদ্ভাবনী প্রযুক্তি হলো ব্যবসার লাইফলাইন এবং সেজন্য মোবাইল ফোর্স অটোমেশন, আইটি কনসাল্টিং ও স্টাফিং, ডেটা অ্যানালিটিক্স, কৃত্রিম বুদ্ধিমাত্তা, রোবটিকস প্রসেস অটোমেশন (আরপিএ), প্রজেক্ট সলিউশন, প্রযুক্তিভিত্তিক পরিষেবাগুলির মতো ব্যাপক, ব্যবসা-কেন্দ্রিক সমাধান প্রদানে এসভিএএম প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এ সকল বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশিক্ষকদের দিয়ে বাংলাদেশের আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য এসভিএএম প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশে তাদের প্রতিষ্ঠান প্রসপেকটিভ সফটওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপন করতে চাই।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে পৃথিবীর অনেক দেশ থেকে বাংলাদেশ এগিয়ে উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে আইসিটি খাতে যথাযথ অবকাঠামো গড়ে ওঠার কারণে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৩ কোটির অধিক। সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার ৫০০ মিলিয়ন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছে। গ্রাম পর্যন্ত ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে গেছে।  

এসভিএএম কর্তৃক প্রসপেকটিভ সফটওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপনের বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৬, ২০২২
এমআইএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa