ঢাকা, সোমবার, ১১ মাঘ ১৪২৭, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

কয়েকশ’ উইগুর ইমামকে আটক করেছে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০২০
কয়েকশ’ উইগুর ইমামকে আটক করেছে চীন ইদ কাহ মসজিদের বাইরে ইমামরা (জানুয়ারি, ২০১৯) ছবি: সংগৃহীত

চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জিনজিয়াং প্রদেশে চীনা কর্তৃপক্ষ যেসব মুসলিম উইগুরকে আটক করে রেখেছে, তাদের মধ্যে মসজিদের ইমামরাও রয়েছেন।

নির্বাসনে থাকা একজন উইগুর ভাষাবিদ জানান, ফলে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে যে, উইগুররা মৃত্যুকে ভয় পায়, কেননা মারা গেলে ধর্মীয় নিয়ম তাদের দাফন-কাফন করার জন্য কেউ নেই।

ইন্টারন্যাশনাল সিটিস অব রিফিউজ নেটওয়ার্ক (আইসিওআরএন) এর নরওয়ে ভিত্তিক ফেলো আবদুবেলি আইয়ুপ জানান, জিনজিয়াংয়ের কয়েকজন উইগুরের সঙ্গে সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে জানা গেছে, ২০১৭ সাল থেকে প্রদেশটির বন্দিশিবিরে আটক ১ কোটিরও বেশি উইগুর ও সংখ্যালঘু মুসলিম জনগোষ্ঠীর মধ্যে অন্তত ৬১৩ জন ইমাম রয়েছেন।

২০১৩ থেকে ২০১৪ সালে উইগুর ভাষা শিক্ষার প্রচারের মাধ্যমে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করতে গিয়ে আটক হন আইয়ুপ নিজেও। সেখানে কারো সঙ্গে যোগাযোগ করা নিষিদ্ধ ছিল। আটক হয়ে মুক্ত হওয়া অন্তত ১৬ জন উইগুরের সঙ্গে কথা বলে তিনি জানতে পারেন, সম্প্রতি আটক ইমামের সংখ্যা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। মূলত উইগুরদের ধর্ম থেকে বিচ্যুত করতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড চালানো হচ্ছে।

আইয়ুপ বলেন, ‘তারা আমাকে বলেছেন, ইমামদের আটক করার পর উইগুররা মৃত্যুকে ভয় পায়, কেননা মারা যাওয়ার পর ধর্মীয় নিয়ম তাদের দাফন-কাফন করার জন্য কেউ নেই। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০২০
এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa