ঢাকা, রবিবার, ৯ আশ্বিন ১৪৩০, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

ইসলাম

বরিশালে ‘কুরআনের নূর’ অডিশনে ইয়েস কার্ড পেল ৩০ জন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৩
বরিশালে ‘কুরআনের নূর’ অডিশনে ইয়েস কার্ড পেল ৩০ জন

বরিশাল: দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ মুসল্লি কমিটির আয়োজনে হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা-২০২৩ ‘কুরআনের নূর’ এর বরিশাল বিভাগের অডিশন শেষ হয়েছে।

বরিশাল নগরের কাশিপুরস্থ দারসুল কুরআন একাডেমিতে অনুষ্ঠিত সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী ক্ষুদে হাফেজদের এ প্রতিযোগিতায় পাঁচ শতাধিক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে।

অডিশন সকাল ৯টায় শুরু হলেও সকাল ৭টা থেকে দারসুল কুরআন একাডেমি প্রাঙ্গণে শিক্ষক ও অভিভাবকদের নিয়ে প্রতিযোগীরা আসতে শুরু করে। পরে নাম, বাবার নাম, মাদরাসার নাম ও মোবাইল নম্বর দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে সকালের নাস্তা সেরে হাফেজরা অডিশনে অংশ নেয়।

অডিশন পর্বে একসঙ্গে পাঁচজন প্রতিযোগী এ পর্বে বিচারকদের সুললিত কণ্ঠে কুরআন শোনান। জোহরের নামাজ শেষে মধ্যাহ্ন ভোজ সম্পন্ন করে বিকেলে বিচারক প্যানেল ফলাফল ঘোষণার প্রস্তুতি নেন। প্রস্তুতি শেষে গোটা বরিশাল বিভাগ থেকে অডিশন পর্বে ৩০ জন হাফেজকে নির্বাচিত করে এবং ইয়েস কার্ড দেয়।

বিভাগীয় প্রধান সমন্বয়ক হাফেজ মাওলানা ইমরান নুরুদ্দীন বলেন, প্রথম পর্বে ইয়েস কার্ড পাওয়া ৩০ জনকে রেকর্ডিংয়ের জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হবে। আর এ কাজটি বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে সমন্বয় করবেন বরিশাল বিভাগের অডিশন সমন্বয়ক হাফেজ ক্বারি ফয়জুল্লাহ হুসাইন।

বরিশাল বিভাগের অডিশন সমন্বয়ক হাফেজ ক্বারি ফয়জুল্লাহ হুসাইন জানান, বিভাগের হাফেজদের সর্ববৃহৎ মিলনমেলা জাতীয় হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতার বরিশাল পর্বে বরিশাল, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, ভোলা, ঝালকাঠি ও বরগুনা জেলার বিভিন্ন মাদ্রাসার পাঁচ শতাধিক কুরআনের পাখি অংশগ্রহণ করে।

অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- হাফেজ মাওলানা মো. মাহফুজুর রহমান, হাফেজ ইব্রাহীম, হাফেজ ফোরকান উদ্দিন, হাফেজ ক্বারি মাহমুদ বিন নুর মুহাম্মাদ, হাফেজ ক্বারি ফয়জুল্লাহ হুসাইন, হাফেজ ক্বারি মাসউদ বিন মোস্তফা, আব্দুল বিন ফারুক, মুহা. আব্দুল মুমিন, সিরাজুল ইসলাম ও রুহুল আমীন ইয়ামীন।

এতে হাজির হওয়া ক্ষুদে হাফেজদের ওস্তাদরা জানান, বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্টপোষকতায় ‘কুরআনের নূর’ প্রতিযোগিতাটি মাঠ পর্যায়ে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এর প্রমাণ এতো প্রতিযোগী একত্রে অংশগ্রহণ করা। হাফেজদের জন্য দেশে এত বেশি পুরস্কার আর বড় আয়োজন কখনও ছিল না। বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিযোগিতার কারণে মাদরাসা শিক্ষার্থীদের কুরআন শেখার প্রতি আগ্রহ জম্মাবে।

বরিশালের পর আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা (উত্তর) ও ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকা দক্ষিণের অডিশন হবে। পরে জাতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতার প্রথম পুরস্কার ১০ লাখ টাকা। দ্বিতীয় পুরস্কার ৭ লাখ, তৃতীয় পুরস্কার ৫ লাখ এবং চতুর্থ ও পঞ্চম পুরস্কার ২ লাখ টাকা করে।

এ রিয়েলিটি শো আসন্ন রমজানে প্রতিদিন নিউজ টোয়েন্টিফোর টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে। এর মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে- দৈনিক কালের কণ্ঠ, ডেইলি সান, বাংলাদেশ প্রতিদিন, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোরডটকম ও ক্যাপিটাল এফএম।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৩
এমএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa