ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

ইসলাম

মানিকগঞ্জে দুই হাজার রোজাদারের মাঝে বসুন্ধরার ইফতার বিতরণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১০ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৪
মানিকগঞ্জে দুই হাজার রোজাদারের মাঝে বসুন্ধরার ইফতার বিতরণ

মানিকগঞ্জ: পবিত্র রমজান উপলক্ষে মানিকগঞ্জের রোজাদারদের মাঝে প্রতিদিন দুই হাজার প্যাকেট ইফতার বিতরণ করছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ।  

বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীরের পক্ষ থেকে প্রথম রমজানে এ ইফতার বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে, যা চলবে পুরো রমজানজুড়ে।

বুধবার (২০ মার্চ) বিকেলে জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জনির তত্ত্বাবধানে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের একটি নির্দিষ্ট বুথ এবং ঘিওর উপজেলার বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের রোজাদারদের জন্য দুটি পিকআপ ভ্যানে করে পৌঁছে দেওয়া হয় ইফতার সামগ্রী।  

জানা যায়, রমজান মাসজুড়েই জেলার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বানিয়াজুরি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ভাসমান ও ছিন্নমূল রোজাদারদের জন্য নির্দিষ্ট একটি বুথে ইফতারের আয়োজনে করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ। এখান থেকে প্রতিদিন মহাসড়কে চলাচলকারী যানবাহনের শ্রমিক ও  রোজাদার যাত্রীদের জন্য দুই শতাধিক প্যাকেট রাখা হয়। ঘিওর উপজেলা মডেল মসজিদে একশত, থানা মসজিদে একশত করে মোট দুই শতাধিক প্যাকেট ইফতারের ব্যবস্থা করা হয়।  

এ ছাড়াও ঘিওর উপজেলার শ্রীবাড়ী পশ্চিমবাড়ী জামে মসজিদ, শ্রীবাড়ী সাহেব বাড়ী জামে মসজিদ, করজনা উত্তর পাড়া জামে মসজিদ, করজনা দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ, নয়াচর জামে মসজিদসহ মোট ২১টি মসজিদে এক হাজার ৬০০ প্যাকেট ইফতারের আয়োজন করা হচ্ছে।

রাজবাড়ীগামী রোজাদার আব্দুর রহিম বলেন, আমি ঘিওর উপজেলার একটি স্টিল কারখানায় কাজ করি। বাড়ী যাচ্ছি। যেহেতু রোজা আর দেখলাম বসুন্ধরা গ্রুপের ইফতারের বুথ থেকে ইফতারের প্যাকেট দিচ্ছে, আমিও একটি প্যাকেট নিলাম, কারণ রাস্তায় কোথায় গিয়ে গাড়ি থামবে কে জানে। যে টাকা মজুরি আমার, তাতে বাইরে থেকে ইফতার কিনে খাওয়াটা কঠিন। রমজান মাস পুরাটাই এখান থেকে ইফতারের আয়োজন করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ। তাদের এই মানবিক কাজ যেমন দুনিয়াতে প্রশংসিত হচ্ছে, ঠিক একইভাবে তারা আখিরাতেও সম্মানিত হবেন।  

জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জনি বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর স্যার সব সময় অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করেন। সেই চিন্তা থেকেই এ অঞ্চলে পুরো রমজান মাসে ইফতারের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন তিনি। মহান আল্লাহর কাছে দু-হাত তুলে দোয়া করি, তিনি (সায়েম সোবহান আনভীর) যেন সব সময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারেন। সৃষ্টিকর্তার কাছে বসুন্ধরা গ্রুপ ও তাদের পরিবারের সবার দীর্ঘায়ু কামনা করি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৪ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৪
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।