ঢাকা, শনিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১২ রজব ১৪৪৪

ইসলাম

মুসলিমদের সমর্থনে প্রতি বুধবার হিজাব পরছে খ্রিস্টান ছাত্রীরা!

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১৬
মুসলিমদের সমর্থনে প্রতি বুধবার হিজাব পরছে খ্রিস্টান ছাত্রীরা! ছবি: সংগৃহীত

ইসলাম বিদ্বেষেদের প্রতিবাদে মুসলিমদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশের লক্ষে আমেরিকার একটি ইউনিভার্সিটি খিস্টান ছাত্রীরা হিজাব পরিধান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিদ্ধান্ত মতে তারা সপ্তাহের প্রতি বুধবার হিজাব মাথায় দিয়ে ইউনিভার্সিটির সব কাজে অংশ নেবে। 

ইসলাম বিদ্বেষেদের প্রতিবাদে মুসলিমদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশের লক্ষে আমেরিকার একটি ইউনিভার্সিটি খিস্টান ছাত্রীরা হিজাব পরিধান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিদ্ধান্ত মতে তারা সপ্তাহের প্রতি বুধবার হিজাব মাথায় দিয়ে ইউনিভার্সিটির সব কাজে অংশ নেবে।

 

মরমন চার্চের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত আমেরিকার উটাহ প্রদেশের ব্রিগহাম ইয়াং ইউনিভার্সিটির খ্রিস্টান শিক্ষার্থীরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমনকি বিগত তিন সপ্তাহ ধরে তারা এটা পালনও করে আসছে। খ্রিস্টান শিক্ষার্থীদের এমন পদক্ষেপে ইউনিভার্সিটির শিক্ষকরা বিস্মিতবোধ করলেও তাদের সমর্থন দিয়েছেন।  

ব্রিগহাম ইয়াং ইউনিভার্সিটির অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা মরমন চার্চের সঙ্গে জড়িত। ইউনিভার্সিটির মিডিল ইস্ট স্টাডিজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের আহবানে অভিনব এ কর্মসূচিতে যোগ দেয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা।  

সচেতন শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে বলছেন, বৈষম্যের মোকাবেলা এবং ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের উন্নতি করার জন্য এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়া এই পদক্ষেপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা একটি বার্তা দিতে চায় যে, মুসলমানরা একা নয়; আমরাও তাদের সঙ্গে আছি।  

এই কর্মসূচিকে আরও ব্যাপক করতে শিক্ষার্থীরা ফেসবুকে Wednesdays with hijab নামে একটি পেইজ চালু করেছে। এর মাধ্যমে অন্য শিক্ষার্থীদের তাদের সঙ্গে যোগ দেওয়ার আহবান জানানোর পাশাপাশি এবং মুসলমানদের সঙ্গে তাদের একাত্মতা প্রকাশের জন্য প্রতি বুধবারে হিজাব ব্যবহার করার অনুরোধ জানিয়েছে।  

তারা জানিয়েছে, প্রতি বুধবারে হিজাব ব্যবহার পদক্ষেপ আগামী বছরেও অব্যাহত থাকবে।  

উল্লেখ্য, মরমন প্রোটেস্ট্যান্টপন্থিদের একটি ধারা। যদিও মূল ধারার খ্রিস্টানরা তাদের খ্রিস্টান হিসেবে স্বীকৃতি দিতে নারাজ। তাদের ব্যাপারে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ভুল ধারণা।

১৮৩০ সালে আমেরিকায় প্রতিষ্ঠিত হয় ‘দ্য চার্চ অব জিসাস ক্রাইস্ট অব লেটার-ডে সেইন্টস’ নামক একটি ধর্মীয় সংগঠন। এটি প্রতিষ্ঠা করেন জোসেফ স্মিথ নামের একজন ধর্মতাত্ত্বিক। অনুসারীরা তাকে ‘ঈশ্বরপ্রেরিত দূত’ বা নবী বলে মনে করেন। আমেরিকার ৩ শতাংশ অর্থাৎ ৭৫ লাখ মানুষ মরমন ধর্মবিশ্বাসী।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১৬
এমএইউ/
ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন [email protected]

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa