ঢাকা, শনিবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

ইসলাম

বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণীয় স্থাপনা এরতুগরুল গাজি মসজিদ

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৬
বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণীয় স্থাপনা এরতুগরুল গাজি মসজিদ ছবি: এরতুগরুল গাজি মসজিদ, আশখাবাদ, তুর্কমেনিস্তান (সংগৃহীত)

তুর্কমেনিস্তান পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যেখানে ১৯৯১ সাল থেকে গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং পানির সেবা বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদে আনিন্দ্য সুন্দর স্থাপনা এরতুগরুল গাজি মসজিদের অবস্থান।

তুর্কমেনিস্তান মধ্য এশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিম অংশের একটি প্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্র। আশখাবাদ তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী ও বৃহত্তম শহর।

তুর্কমেনরা এখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ জাতি। ১৯৯১ সালে দেশটি স্বাধীন হয় এবং ১৯৯২ সালে নতুন সংবিধান কার্যকর করে।  

তুর্কমেনিস্তান পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যেখানে ১৯৯১ সাল থেকে গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং পানির সেবা বিনামূল্যে প্রদান করা হয়।  

তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদে আনিন্দ্য সুন্দর স্থাপনা এরতুগরুল গাজি মসজিদের অবস্থান।

এরতুগরুল গাজি মসজিদ। এটি বর্তমান বিশ্বের একটি আকর্ষণীয় মসজিদ। মসজিদটি মর্মর পাথর দ্বার নির্মিত। বিখ্যাত এ মসজিদে রয়েছে চারটি মিনার এবং একটি কেন্দ্রীয় বা মূল গম্বুজ।

১৯৯৮ সালে মসজিদটি নামাজের জন্য চালু করা হয়। সাদা মর্মর পাথরের এ স্থাপনাটি স্মরণ করিয়ে দেয় তুরস্কের ইস্তাম্বুলের বিখ্যাত নীল মসজিদের কথা।  

মসজিদের অভ্যন্তরীণ অলঙ্করণ অসাধারণ। স্বচ্ছ রঙমিশ্রিত কাচের জানালাগুলো দৃষ্টি কাড়ে যেকোনো দর্শনার্থীর।  

এরতুগরুল গাজি মসজিদে প্রায় পাঁচ হাজার মুসল্লি একত্রে নামাজ আদায় করতে পারেন। মসজিদটি আশখাবাদের একটি বিখ্যাত স্থাপনা, যা দূর থেকে দেখা যায় এবং এটি দিয়ে ওই স্থানকে চেনা যায়।

ওসমানীয় সাম্রাজ্যের (তুরস্ক) প্রতিষ্ঠাতা প্রথম ওসমানের বাবা এরতুগরুলের সম্মানে মসজিদটির নামকরণ করা হয় এরতুগরুল গাজি মসজিদ।  

এরতুগরুল ছিলেন ওঘুজ তুর্কিদের কায়ি গোত্রের নেতা। তার উপাধি ছিল গাজি। ১১৯১ (মতান্তরে ১১৯৮) সালে তিনি আহলাতে জন্মগ্রহণ করেন। আহলাতের অবস্থান আনাতোলিয়া বা এশিয়া মাইনরের পূর্বাংশে। এই দুর্ধর্ষ যোদ্ধা তুর্কমেনিস্তান থেকে ৪০০ অশ্বারোহী সেনা নিয়ে আনাতোলিয়ায় আসেন এবং সেই সময়কার বাইজান্টাইন সাম্রাজ্যের বিরুদ্ধে রুমের সেলজুক তুর্কিদের সহায়তা করেন। সাহসী যোদ্ধা হিসেবে ইতিহাসে রয়েছে তার বিশিষ্ট স্থান। ১২৮১ সালে সুগুতে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। সুগুতের অবস্থান বর্তমান তুরস্কের পশ্চিম এশিয়া মাইনর বা আনাতোলিয়ায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৬
এমএইউ/
ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন [email protected]

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa