ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

ইসলাম

হেঁটে জুমার নামাজে যাওয়ার সওয়াব

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৮
হেঁটে জুমার নামাজে যাওয়ার সওয়াব হেঁটে মসজিদে যাচ্ছেন একব্যক্তি। প্রতীকী ছবি

জুমার নামাজে হেঁটে উপস্থিত হওয়া মুসল্লির জন্য উত্তম ও ফজিলতপূর্ণ। কারণ, হেঁটে জুমায় যাওয়া রাসুল (সা.)-এর সুন্নত। অবশ্য মসজিদ যদি বেশি দূরে হয়, তখন কষ্ট করে হেঁটে যাওয়ার দরকার নেই।

হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি জুমার দিন গোসল (ফরজ) অথবা (সাধারণ) গোসল করলো, তাড়াতাড়ি মসজিদে গেলো অথবা যাওয়ার চেষ্টা করলো, যাওয়ার পথে কোনো কিছুতে আরোহন না করে হেঁটে গেলো, ইমামের কাছে ঘেঁষে বসলো, কোনো প্রকার অহেতুক কথাবার্তা না বলে মনোযোগের সঙ্গে খুতবা শোনে ও নামাজ আদায় করে, তাহলে তার প্রতিটি কদমের (পদক্ষেপ) বিনিময়ে এক বছর রোজা ও নামাজের সওয়াব দেওয়া হবে। (তিরমিজি, হাদিস নম্বর: ৪৫৬)

অন্যান্য সাহাবায়ে কেরামের মতো রাসুল (সা.)-এর প্রিয় সাহাবি আবদুল্লাহ ইবনে রাওয়াহা (রা.) মসজিদে হেঁটে আসতেন, তবে ফিরে যাওয়ার সময় কখনো হেঁটে যেতেন, আবার কখনো আরোহন করে যেতেন।

(ইবনে আবি শায়বা)।

ওমর ইবনে আবদুল আজিজ (রহ.) তার গভর্নরদের কাছে লিখে পাঠিয়ে ছিলেন যে, কেউ যেন আরোহিত হয়ে জুমায় না আসেন। (ইবনে সায়াদের বরাতে ‘ফাতহুল বারি লিল হাফিজ ইবনে রজব আল-হাম্বলি)

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১০০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৮
এমএমইউ/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa